‘যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে বাংলাদেশীরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন’

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সিলেট সফররত যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক স্টেইট সিনেট এর সিনেটররা বলেছেন, ‘অফিসিয়ালি ৬ লক্ষ বাংলাদেশী নিউইয়র্কে বসবাস করেন এবং নিউইয়র্কের অর্থনীতিতে তাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। শুধু নিউইয়র্ক নয়, পুরো যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী কমিউনিটি সফলতার স্বাক্ষর রাখছেন। আমরা বাংলাদেশের সাথে একটি সেতুবন্ধন সৃষ্টি করতে চাই। বিশেষ করে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিক্ষাক্ষেত্রে এই সম্পর্ক জোরদার করা সম্ভব।’

মঙ্গলবার দুপুরে সিলেট চেম্বার কনফারেন্স হলে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক স্টেইট সিনেট এর পাঁচজন সিনেটর ও প্রতিনিধিদলের সাথে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ মতবিনিময় সভায় তারা এ কথা বলেন।

সিলেট চেম্বারের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন নিউইয়র্ক স্টেইটের সিনেটর লুইস আর. সেপুলভেদা, সিনেটর জন চুন ইয়াহ লিউ, সিনেটর জেম্স স্কউফিস, সিনেটর কেভিন এস. পারকার ও সিনেটর লেরয় কমরি।

সিনেটররা আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি দেশ। বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতি অত্যন্ত প্রশংসনীয়। যুক্তরাষ্ট্রের অনেকগুলো কোম্পানী বাংলাদেশে দীর্ঘমেয়াদী বিনিয়োগ করেছে এবং নতুন অনেক বিনিয়োগকারী বাংলাদেশে বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী।’

সিনেটরগণ সিলেট চেম্বার অব কমার্সের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে চেম্বারগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তারা যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক বৃদ্ধিতে দুই দেশের ব্যবসায়ীদেরকে অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহবান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু তাহের মোঃ শোয়েব সিলেটের শিল্প, পর্যটন, শিক্ষা ও আইটি খাতে বিনিয়োগের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগকারীদের আহবান জানান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সহ সভাপতি তাহমিন আহমদ, পরিচালক ফখর উস সালেহীন নাহিয়ান, মার্কিন ডেমোক্রেটিক পার্টির ডিস্ট্রিক্স লিডার মঈন চৌধুরী সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, প্রগ্রেসিভ লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানীর ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধিদলের সদস্য সোফিয়া লাজাউনি, নিপা রইছ, কার্লোছ ভ্যালে, জ্যাকসন হাইট বিজনেস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শাহনেওয়াজ, ডেমোক্রেটিক ক্লাব প্রেসিডেন্ট মোর্শেদ আলম, সিলেট চেম্বারের সাবেক প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ, পরিচালক মোঃ মামুন কিবরিয়া সুমন, মোঃ সাহিদুর রহমান, মুশফিক জায়গীরদার, ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মোঃ নজরুল ইসলাম, ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী, আমিনুজ্জামান জোয়াহির, খন্দকার ইসরার আহমদ রকী, শাবিপ্রবির সহযোগী অধ্যাপক ড. ফজলে এলাহী মোঃ ফয়ছল, সিলেট বিভাগ উন্নয়ন পরিষদ নিউইয়র্ক শাখার প্রেসিডেন্ট রানা ফেরদৌস চৌধুরী, নারী উদ্যোক্তা সানজিদা খানম প্রমুখ।

শেয়ার করুন