পার্লার খুলে পতিতালয়, সাতক্ষীরা যুবলীগের সেই বহিষ্কৃত নেতা গ্রেপ্তার

ডেস্ক রিপোর্ট:পার্লার খুলে পতিতালয় চালুর অভিযোগে দায়ের করা মানব পাচারের একটি মামলায় সাতক্ষীরার বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা তুহিনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে শহরের বাইপাস সড়ক এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার তুহিনুর রহমান তুহিন সাতক্ষীরা পৌর যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ও জেলা যুবলীগের সদস্য ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, তুহিন শহরের সংগ্রাম টাওয়ারে রুম ভাড়া নিয়ে জেন্টস পার্লার ও আবাসিক হোটেল চালু করে। এরপর সেখানে একটি মিনি পতিতালয় গড়ে তোলেন। গত ৭ অক্টোবর পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে নারীসহ আটজনকে গ্রেপ্তার করে।

এ সময় হোটেলের বিভিন্ন কক্ষে তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ কনডম ও ১০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ। তবে যুবলীগ নেতা তুহিন পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় তুহিনসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই ) ফরিদ হোসেন বাদী হয়ে মানব পাচার আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর ওই রাতেই তাকে পৌর যুবলীগের সভাপতি পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহিদুল ইসলাম। তিনি জানান, কয়েকদিন ধরেই পলাতক ছিলেন তুহিন। শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের বাইপাস সড়ক এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

শেয়ার করুন