তোপের মুখে আবরারের বাড়ি ছাড়লেন বুয়েট ভিসি

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: ছাত্রলীগের নৃশংস পিটুনিতে নিহত শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের বাড়িতে গিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন বুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। পরে আবরারের বাড়িতে গিয়ে সান্ত্বনা না জানিয়েই তিনি ঢাকায় ফিরে আসেন। তবে তিনি আবরারের কবর জিয়ারত করেছেন।

বুধবার বিকাল পাঁচটার দিকে বুয়েট ভিসি কুষ্টিয়ার কুমারখালীর রায়ডাঙ্গায় আবরার ফাহাদের বাড়িতে যান। বাড়িতে ঢোকার সময় তিনি জনসাধারণের বিক্ষোভের মুখে পড়েন। প্রায় ১৫ মিনিট অবস্থান করে জেলা প্রশাসনের গাড়িতে করে তিনি রায়ডাঙ্গা ত্যাগ করেন।

এর আগে আগে উপাচার্য আবরারের দাদা, বাবা ও ছোট ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলেন ও তাদেরকে সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। বিকাল সাড়ে চারটার দিকে আবরারের কবর জিয়ারত করতে রায়ডাঙ্গায় যান উপাচার্য। তিনি সেখানে আবরারের বাবা বরকত উল্লাহসহ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে কবর জিয়ারত করেন।

আবরারের মা রোকেয়া খাতুনের সঙ্গে দেখা করতে বাড়িতে যেতে চেয়েছিলেন বুয়েট ভিসি। তবে সেখানে গিয়ে শত শত গ্রামবাসীর তোপের মুখে পড়েন তিনি। এক পর্যায়ে তিনি ফিরে আসেন।

রোববার (৬ অক্টোবর) দিনগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের নিচতলা থেকে আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনের নামে মামলা করেন। এ মামলায় এখন পর্যন্ত ১৩ জনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

এ ঘটনায় বুয়েট ক্যাম্পাস আন্দোলনে উত্তাল হয়ে উঠলেও ভিসি ক্যাম্পাসে আসেননি। এমনকি আবরারের জানাজায়ও তিনি অংশ নেননি। অবশেষে ছাত্রীদের আলটিমেটামের মুখে মঙ্গলবার বিকালে তিনি ক্যাম্পাসে আসেন। এখানেও তিনি তোপের মুখে পড়েন। শিক্ষার্থীরা তাকে প্রায় চার ঘণ্টা নিজ কার্যালয়ে অবরোধ করে রাখে।

শেয়ার করুন