আবরার হত্যার প্রতিবাদে সিলেট বিক্ষোভ অব্যাহত

 সিলেটের সকাল ডেস্ক :: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ফুসে উঠেছে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় শহর সিলেটের শিক্ষার্থীরাও। অব্যাহত কর্মসূচির অংশ হিসেবে দ্বিতীয় দিন বুধবার নগরীতে ছাত্রদল, ছাত্রশিবির এবং ছাত্র মজলিসের আয়োজনে পৃথক বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দুপুরে নগরীর জিন্দাবাজারের কাজী ইলিয়াস থেকে মিছিল বের করে জেলা ও মহানগর ছাত্রদল। এসময় পুলিশ তাদের মিছিল করতে বারণ করলে এ নিয়ে বেশ বাকবিতন্ডা হয়। পরে তারা বারণ অমান্য করেই মিছিল নিয়ে বের হয়। সেখান থেকে শুরু হওয়া মিছিল বিভিন্ন সড়ক ঘুরে রিকাবীবাজার গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্তে সমাবেশে বক্তারা আবরার ফাহাদ হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। একই সাথে ছাত্রলীগ নিষিদ্ধের দাবিও করেন।

মিছিলে সিলেট জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আলতাফ হোসেন সুমন, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি সুদিপ জ্যোতি এষ, মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী আহসান ও জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন নাদিমসহ নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

এদিকে একই সময় বন্দর বাজারের লালবাজার মোড় থেকে মিছিল বের ছাত্রশিবির। মহানগর শিবির সভাপতি ফরিদ আহমদের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিলে শতাধিক শিবির নেতাকর্মী অংশ নেন। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তারাও আবরার হত্যাকারীদের বিচারের পাশাপাশি ছাত্রলীগকে ‘সন্ত্রাসী’ সংগঠন আখ্যা দিয়ে নিষিদ্ধের দাবি জানান।

অন্যদিকে নগরীর কোর্ট পয়েন্ট থেকে মিছিল বের করে ইসলামী ছাত্র মজলিস সিলেট মহানগর শাখা। বিভিন্ন সড়ক ঘুরে ফের কোর্ট পয়েন্টে এসে শেষ হয়। এর আগে সংগঠনের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি পরিষদ সদস্য ও সিলেট মহানগর সভাপতি আফজাল হোসাইন কামিলের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ ও প্রচার সম্পাদক বিলাল আহমদ চৌধুরী বলেন, ‘দেশ বিরোধী কোন চুক্তি দেশের জনগণ মেনে নেবে না। ভারতের সাথে দেশ বিরোধী সকল চুক্তি বাতিল করতে হবে এবং আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে ।’

সিলেট মহানগর সেক্রেটারী সাইফুল ইসলাম জলিলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা মনজুরে মওলা, কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি পরিষদ সদস্য ও পূর্ব জেলা সভাপতি মুহাম্মদ জারির হুসাইন, পশ্চিম জেলা সভাপতি মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, শাবিপ্রবি সভাপতি জাকারিয়া হোসেন জাকির, সাবেক পশ্চিম জেলা সভাপতি জাকির হোসেন সাঈদ, পশ্চিম জেলা সেক্রেটারী মুহাম্মদ শাহাবুদ্দিন, সাবেক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সেক্রেটারী মুহাম্মদ খায়রুল ইসলাম ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহানগরীর প্রশিক্ষণ ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রব, বায়তুলমাল ও ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক লিটন আহমদ জুম্মান, প্রচার ও পাঠাগার সম্পাদক ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, অফিস ও মাদ্রাসা কার্যক্রম সম্পাদক মোস্তফা আহমদ সোহান। পূর্ব জেলার প্রশিক্ষণ ও মাদ্রাসা বিষয়ক সম্পাদক এম জাবের আহমদ, বায়তুলমাল ও প্রচার সম্পাদক রুহুল আমিন, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক সাইফুর রহমান, অফিস ও পাঠাগার সম্পাদক মুজিবুর রহমান, পশ্চিম জেলার অফিস ও প্রচার সম্পাদক ইমদাদুল হক ইমরান, খেলাফত মজলিস কতোয়ালী পশ্চিম থানা সেক্রেটারী মাওলানা সাইফুল ইসলাম, শ্রমিক মজলিস সিলেট মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক হোসাইন আহমদ, মুশাররফ আবেদীন জয়, মুয়াজ হুসাইন, রায়হান আহমদ, আনিসুল ইসলাম এমাদ উদ্দীন প্রমুখ।

শেয়ার করুন