৬৪০টি প্রতিষ্ঠানে কারিগরি শিক্ষা ট্রেড চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী

দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি :: ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কারিগরি শিক্ষার ট্রেড চালু হবে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি বলেছেন, ‘টেকসই উন্নয়ন বাস্তবায়ন করতে হলে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই। এজন্য সরকার কারিগরি শিক্ষার বিস্তারে কাজ করছে। এর অংশ হিসেবে এ বছর দেশের ৬৪০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষার ট্রেড চালু করা হবে।’

রোববার বিকেলে নগরীর দক্ষিণ সুরমায় সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে ‘কারিগরি শিক্ষা বিস্তারে করণীয়’ বিষয়ে কর্মশালা ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এসময় শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, ‘কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিতরা কর্মক্ষেত্রে কখনো পিছিয়ে থাকতে পড়ে না। কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটে।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প-’৪১ বাস্তবায়নে কারিগরি শিক্ষা এক ভাগ থেকে ১৭ ভাগে উন্নিত করা হয়েছে। তবে প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেট কারিগরি শিক্ষায় ক্ষেত্রে এখনও পিছিয়ে আছে। কারিগরি শিক্ষার বিস্তার ঘটলে প্রবাসে গিয়ে ভাল চাকুরীর সুযোগ পাওয়া যায়। তিনি শিক্ষকদেরকে কারিগরি শিক্ষার প্রতি আন্তরিক হয়ে শিক্ষার্থীদেরকে দক্ষ মানব সম্পদে পরিণত করার আহবানও জানান।

কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) রওনক মাহমুদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান নওফেল এমপি বলেন, ‘কারিগরি শিক্ষায় এখনো আমরা পিছিয়ে রয়েছি। বর্তমান বিশে^ কারিগরি শিক্ষার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। তাই বেকারত্ব দূরীকরণে ও দক্ষ মানব সম্পদ তৈরী করার লক্ষ্যে সরকার কারিগরি শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছে।’

সিলেট পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট এর অধ্যক্ষ ড. ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আব্দুল্লাহ’র পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সিনিয়র সচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মুন্সী শাহাব উদ্দীন আহমেদ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মুরাদ হোসেন মোল্লা। কর্মশালায় সিলেটের ১৪৫টি স্কুল ও মাদরাসার শিক্ষকগণ অংশ গ্রহণ করেন।

শেয়ার করুন