২২ হাজার টাকার দোয়েল ল্যাপটপ মিলছে ১৪ হাজারে!

ফাইল ছবি

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: এবার ১৪ হাজার টাকায় পাওয়া যাবে দোয়েল ল্যাপটপ। ফ্রিডম কিউএন৪২ ব্র্যান্ডের এ ল্যাপটপটির বাজার মূল্য ছিল ২২ হাজার টাকা। তবে শিক্ষার্থীসহ সাধারণ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর ক্রয়ক্ষমতার বিষয়টি বিবেচনা করে বিক্রয়োত্তর সেবার গ্যারান্টিসহ ১৪ হাজার ৯৯৯ টাকায় ল্যাপটপটি বিক্রি করা হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে কম্পিউটার সিটিতে বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থার (টেশিস) শোরুম উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়। ফিতা কেটে টেশিস শোরুমটির উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

ল্যাপটপটিতে প্রসেসর দেয়া হয়েছে ইনটেল পেন্টিয়াম কোয়াড কোর এন ৪২০০, ১.১ গিগাহার্জ আপটু ২.৪ গিগাহার্জ, কেছি ২এমবি। ডিসপ্লে ১৪ ইঞ্চি এইচডি ব্যাক লাইট। র‌্যাম ৪জি ডিডিআর৩, এইচডিডি ১টিভি এবং ব্যাটারি ৪ সেল লায়ন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন কম্পিউটার ও ল্যাপটপ উৎপাদনই করছে না, বরং নাইজেরিয়াসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কম্পিউটার ও ল্যাপটপ রপ্তানি করছে।

সাশ্রয়ী দামে সবার জন্য গুণগত মানের ডিজিটাল ডিভাইস নিশ্চিত করার উদ্যোগের অংশ হিসেবে দেশের প্রতিটি অঞ্চলে পর্যায়ক্রমে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন টেশিস উৎপাদিত দোয়েল ল্যাপটপ সহজলভ্য করতে শোরুম ও সার্ভিস সেন্টার খোলা হবে বলে জানান মন্ত্রী।

দোয়েল ল্যাপটপ প্লান্ট বাংলাদেশের প্রথম স্থানীয়ভাবে তৈরি ও অ্যাসেম্বলিংকৃত ল্যাপটপ বা নেটবুক। ল্যাপটপের নাম রাখা হয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পাখি দোয়েলকে অনুসরণ করে।

১০ জুলাই, ২০১১ইং পরীক্ষামূলকভাবে দোয়েলের উৎপাদন প্রক্রিয়া শুরু হয়৷ তুলনামূলকভাবে অন্যান্য ল্যাপটপের চেয়ে কম দামের নেটবুক ধরনের এ ল্যাপটপ তৈরি করেছে বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থা- টেশিস।

শেয়ার করুন