সমাবেশ করার জন্য প্রস্তুত বিএনপি, অনুমতি মেলেনি এখনও

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: দুর্নীতি মামলার কারান্তরিণ দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সিলেটে বিভাগীয় সমাবেশ করবে বিএনপি।  আগামী মঙ্গলবার বেলা ২টায় রেজিষ্টারি মাঠে এ সমাবেশে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষ নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

তবে, সমাবেশে দু’দিন বাকি থাকলেও এখন পর্যন্ত প্রশাসনের অনুমতি পায়নি দলটি। এমনকি এসএমপির শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাত করারও সুযোগ দেয়া হচ্ছেনা বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ। তাদের দাবি, বিভাগীয় সমাবেশ করার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন, তবে প্রশাসনের অনুমতি এখনও মিলেনি। এছাড়া প্রতিদিন প্রশাসনের কাছে ধরনা দিয়েও ইতিবাচক কোন ইঙ্গিত মিলছে না।

রোববার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন। অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সমাবেশকে সফল করতে এবং বর্তমান সরকারের হাত থেকে মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার স্বার্থে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে দেশপ্রেমিক জনতাকে সমাবেশে যোগ দেয়ার আহবান জানানো হয়।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, দুর্নীতির তকমা দিয়ে ষড়যন্ত্রমুলক মামলায় রায় দিয়ে তিনবারের সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করে রাখা হয়েছে। গুরুতর অসুস্থ হয়ে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অথচ আজ দেশে দূর্নীতির মহোৎসব চলছে। নেতাদের ঘরে ঘরে মিলছে কোটি কোটি টাকা। সরকার সে দিকে খেয়াল না করে বিরোধীমতকে গলাটিপে হত্যার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।

লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, আগামী ২৪ সেপ্টেম্বরের সিলেটের সমাবেশ দেশও জাতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সমাবেশ কর্মসূচিতে দলীয় নেতাকর্মীর বাইরেও সাধারণ মানুষের ব্যাপক সাড়া মিলেছে। দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে চলছে সমাবেশের প্রস্তুতি। অভিযোগ করা হয়,সমাবেশের সময় ঘনিয়ে এলেও প্রশাসন অনুমতি দেয়া নিয়ে নানা টালবাহানা করছে। আসন্ন সমাবেশ সকল বাধা বিপত্তি ডিঙ্গিয়ে জনসমুদ্রে পরিনত হবে বলে প্রত্যাশা করেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে আরো অভিযোগ করা হয়, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশান্তরি করা হয়েছে। সিলেটের জনপ্রিয় বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলী, ছাত্রদল নেতা দিনারসহ অসংখ্য নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে। গুমকৃত সকল নেতাকর্মীদের অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানানো হয়। এছাড়া নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মামলা ও নির্যাতন বন্ধ না হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়। বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন আরো কঠোর করতে সকলস্থরের নেতাকর্মীদের সকল কর্মসূচিতে স্বোচ্ছার হওয়ার আহবান জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে সিলেটের বিভাগীয় সমাবেশ সফলে গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতা কামনা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হোসেন জীবন, সাবেক সংসদ সদস্য দিলদার হোসেন সেলিম ও কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, বিএনপির সাবেক জেলা সভাপতি এডভোকেট নূরুল হক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম সিদ্দিকী প্রমুখ।

শেয়ার করুন