দক্ষ নাট্যকর্মীরা সিলেটের নাট্যাঙ্গনকে সমৃদ্ধ করবে : জেলা প্রশাসক

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, সাংস্কৃতিক চর্চায় প্রতিটি শাখায় সমৃদ্ধ হতে হলে দক্ষতা অর্জন খুবই জরুরি। একজন দক্ষ নাট্যশিল্পী হতে হলে প্রশিক্ষণ গ্রহণের মধ্য দিয়ে তৈরি হতে হবে। সম্মিলিত নাট্য পরিষদ একটি মহৎ ও সময়োপযোগী উদ্যোগ নিয়েছে। আবাসিক নাট্য কর্মশালার মধ্য দিয়ে নাট্যকর্মীরা ভালো কিছু কাজ শেখার সুযোগ পাবেন। সিলেটের নাট্যাঙ্গনকে সমৃদ্ধ করতে প্রশিক্ষণের মধ্য দিয়ে দক্ষ নাট্যশিল্পী সৃষ্টি করা যায়। এ সময় তিনি সিলেটের নাট্যচর্চায় যেকোনো শুভ উদ্যোগের পাশে থাকার কথা ব্যক্ত করেন।

আজ শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) সিলেটের খাদিমনগরে এফআইভিডিবি’র কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট আয়োজিত প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত আবাসিক নাট্যকর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

কর্মশালার প্রথম দিন সকাল ১১টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে করেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদ, সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু।

নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্তের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, কর্মশালার মুখ্য প্রশিক্ষক ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কল্যাণী নাট্য চর্চা কেন্দ্রের পরিচালক নাট্য নির্দেশক কীশোর সেনগুপ্ত, নাট্য পরিষদের প্রধান পরিচালক অরিন্দম দত্ত চন্দন, প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন নাট্য সংগঠক আব্দুল কাইয়ুম মুকুল প্রমুখ।

উপস্থিত ছিলেন, নাট্য পরিষদের সহ-সভাপতি উজ্জ্বল দাস, প্রচার সম্পাদক অচিন্ত কুমার দে ও নির্বাহী সদস্য ফারজানা সুমী।

নাট্য কর্মশালায় নাট্য পরিষদের অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন সদস্য সংগঠন সমূহের ৩০ জন নাট্যকর্মী অংশ নিয়েছেন। ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বর এফআইভিডিবি’র কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ও ৮ সেপ্টেম্বর সারদা হলের মহড়া কক্ষে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে।

উদ্বোধনী দিনে সকাল ৯টা থেকে এফআইভিডিবি’র কেন্দ্রীয় প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে কর্মশালা শুরু হয়। ৮ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেল ৫টায় সারদা হলে সম্মিলিত নাট্য পরিষদের মহড়াকক্ষে ৩ দিনব্যাপী নাট্য কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীদের মাঝে প্রশংসাপত্র বিতরণ করা হবে।

শেয়ার করুন