আফগানদের বিরুদ্ধে জিততে মরিয়া বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল খেলার আশা নিয়ে মিশন শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবে শেষ করতে হয়েছে সাত নম্বরে থেকে। এরপর শ্রীলঙ্কার কাছে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা। সব মিলিয়ে বেশ বিধ্বস্ত বাংলাদেশ। সামনে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে একটি টেস্ট খেলতে নামবে বাংলাদেম। এই ম্যাচে যে কোনো মতে জিততে মরিয়া টাইগাররা।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্ট খেলতে বৃহস্পতিবার মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের মুখে শোনা গেল দুঃসময় কাটিয়ে নতুন অধ্যায় সূচনা করার কথা।

সাকিব বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। হাইপারফরম্যান্স দল, ‘এ’ দল—কোথাও আমরা খুব একটা ভালো করতে পারেনি। শুধু অনূর্ধ্ব-১৯ ইংল্যান্ডে ফাইনাল (ত্রিদেশীয় সিরিজে) খেলেছে। এই টেস্ট আমাদের কাছে তাই খুব গুরুত্বপূর্ণ, খুব ভালো ভাবে জিতলে অনেক কিছু আবার স্বাভাবিক হতে শুরু করবে।

টেস্ট ক্রিকেটে নবীনতম দল আফগানিস্তান। তাদের বিপক্ষে প্রভাববিস্তার করে জেতার প্রত্যাশাটা করা যেতেই পারে। কিন্তু প্রতিপক্ষ বিশ্বের সেরা স্পিন নির্ভর হওয়ায় সাকিব জয়ের বিষয়টা দেখছেন ভিন্নভাবে, না, জয়টাই গুরুত্বপূর্ণ। ভালোভাবে আর খারাপভাবে নয়। ১ রানে জিতলেও সেটি জয়, ১০০ রানে জিতলেও জয়ই। ১ উইকেট হোক বা ১০ উইকেট, জয় জয়ই। জেতাটাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

এদিকে গত ডিসেম্বরের পর আর কোনো টেস্ট খেলা হয়নি সাকিবের। তাই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের র‌্যাংকিং থেকে তিনে নেমে গেছেন এই বাঁহাতি তারকা। গত জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার শীর্ষস্থান দখল করেন। আর ক’দিন আগে অ্যাশেজে দারুণ করে সাকিবকে তিনে নামিয়ে দ্বিতীয়স্থানে উঠে যান ইংল্যান্ডের বেন স্টোকস। যদিও দলীয় পারর্ফম ছাড়া ব্যক্তিগত ব্যাপার নিয়ে কখনোই চিন্তা করেন না সাকিব।

সাকিব আরও বলেন, দলের জয়ের পেছনে কতটা অবদান রাখতে পারি এই জিনিসই সবচেয়ে বেশি কাজ করে। সেটি যদি বেশি রাখতে পারি, স্বাভাবিকভাবেই র‌্যাঙ্কিং তার জায়গাটা আপনা আপনি করে নেবে। এই কারণেই আমার র‌্যাঙ্কিং নিয়ে চিন্তা করতে হয় না।

শেয়ার করুন