৫৩ ঘন্টা পর ভেসে উঠল আবিরের লাশ

আবিদুর রহমান, কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ ৫৩ ঘন্টা পর নদীতে ভেসে উঠল নিখোঁজ লিডিং ইউনিভার্সিটির ছাত্র হাসানুর রহমান আবিরের লাশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় ভোলাগঞ্জ জিরো লাইনের বিজিবি ক্যাম্প থেকে ২০০ গজ পশ্চিমে লাশটি ভেসে ওঠে। স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। নিহত আবির সিলেট নগরীর চৌকিদেখি মজুমদারীর আব্দুল মতিনের ছেলে। গত বছর সে লিডিং ইউনিভার্সিটি থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে।
জানা যায়, গত রোববার দুপুরে ৮জন বন্ধু মিলে সাদা পাথর দেখতে এসেছিলেন। এসময় সাঁতার না জানা আবির পানিতে নামলে ¯্রােতধারায় ভেসে যায়। এরপর তার সহপাঠীরা তাকে খুঁজে পাননি। পরে তারা ঘটনাটি জানালে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে বিকেল ৩টায় পৌঁছে উদ্ধার অভিযান চালায়। কিন্তু তারা আবিরকে উদ্ধার করতে পারেনি। পরদিন সোমবার সকাল থেকে ডুবুরিরা এসে পুনরায় উদ্ধার কাজ শুরু করেন। সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে এদিনও তার সন্ধান মিলেনি। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আবিরের লাশ নদীতে ভেসে ওঠে।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ তাজুল ইসলাম জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে, বালু ভর্তি বলগেট নৌকা ডুবে পানিতে নিখোঁজ হওয়ার ২৪ ঘন্টা পর শ্রমিক পাবেল (৩৫) এর লাশ ধলাই নদী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকেলে ধলাই নদীর নতুন বাজার এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত পাবেল সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সংগ্রামপুর গ্রামের নুরুল আমিনের পুত্র। এর আগে গত রোববার উপজেলার টুকেরবাজারে বালু বোঝাই নৌকা ডুবে নঈম ও জমির নামের আরও দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

শেয়ার করুন