হাসতে হাসতে অজ্ঞান ২৫ শিক্ষার্থী

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: শ্রেণি কক্ষে হঠাৎ হাসতে শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। ঐসময় ক্লাসে ছিলেন শিক্ষক। হাসতে হাসতে অজ্ঞান হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (২২ জুলাই) দুপুরে কুমিল্লা সদর উপজেলার সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণির মেয়েদের কক্ষে।  হাসতে হাসতে অজ্ঞান হন মোট ২৫ জন ছাত্রী।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নারায়ণ চক্রবর্তী জানান, সোমবার টিফিন পিরিয়ড শেষে পাঠদান শুরু হয়। দুপুর আড়াইটায় অষ্টম শ্রেণির মেয়েদের ক্লাসে পাঠদান করছিলেন শিক্ষক সুধাংশু ভূষণ দাস। হঠাৎ শ্রেণিকক্ষে দুই-তিন জন শিক্ষার্থী হাসাহাসি শুরু করে। শ্রেণি শিক্ষক হাসির কারণ জানতে চাইলে, অন্যরাও হাসি শুরু করে। হাসতে হাসতে একের পর এক অসুস্থ হয়ে পড়ে ২৫ শিক্ষার্থী। পুরো বিদ্যালয়ে এ সময় আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। শিক্ষকসহ অন্যরা অসুস্থ শিক্ষার্থীদের স্থানীয় কাবিলা ইস্টার্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক কল্যাণময় দেব জিত জানান, শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত হাসির কারণে প্রচণ্ড মাথা ব্যথায় অজ্ঞান হয়ে যায়। দুই-এক জনের মধ্যে প্রথমে রোগটি দেখা দিলে বাকিরা আতঙ্কিত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

শেয়ার করুন