স্নেহবঞ্চিত শিশুদের চলচ্চিত্র নির্মাণ শেখালো কাকতাড়ুয়া

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: “সবার জন্য চলচ্চিত্র” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে অসহায়, নির্যাতিত, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের চলচ্চিত্র নির্মাণ শেখালো স্থিরচিত্র ও চলচ্চিত্র বিষয়ক সংগঠন কাকতাড়ুয়া।

শুক্রবার সিলেটের দয়ামীরে অবস্থিত এসওএস শিশু পল্লীতে গিয়ে প্রায় অর্ধশত শিশু ও তাদের মায়েদের স্থিরচিত্র ও চলচ্চিত্রের মৌলিক জ্ঞান প্রদান করেছে সংগঠনটি।

প্রতিকূল আবহাওয়া উপেক্ষা করে ১২ জুলাই, শুক্রবার সকাল থেকেই শিশু পল্লীতে সাজসাজ রব পড়ে যায়। সম্মেলনকক্ষে মায়েদের সাথে নিয়ে বিভিন্ন বয়সী শিশুরা কর্মশালায় অংশ নেয়। কাকতাড়ুয়া সদস্য তাসমিয়া কানিজ আহমেদের সঞ্চালনায় এবং এসওএস শিশু পল্লীর পরিচালক মোহাম্মদ ইউসূফ আলীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন নির্মাতা খলিলুর রহমান ফয়সাল, কাকতাড়ুয়ার ফটোগ্রাফার অরণ্য ধ্রুব, এসওএস শিশু পল্লীর স্পন্সরশিপ অফিসার মো. মাজহারুল ইসলাম খান। কর্মশালার ফাঁকে-ফাঁকে গান গেয়ে শুনান কাকতাড়ুয়া সদস্য ফরিদা পারভীন ইতি। শিশুদের চলচ্চিত্র ও স্থিরচিত্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শিক্ষা দেন কাকতাড়ুয়া সদস্য মোহাম্মদ নিয়াজ, প্রান্ত দাশ, ইমন আরমান, শুভ্র বৈষ্ণব, কাজী জাহিদ, মুহসীন আহমেদ, বিজয় আহমেদ, সাবিনা সেবিন, আকাশ আহমেদ।

নির্মাতা খলিলুর রহমান ফয়সাল বলেন, অনেকটা সামাজিক দায়বদ্ধতা নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে আমরা শিশুদের আগ্রহী করে তুলতে চাই। এসওএস শিশু পল্লীর পরিবেশটা চমৎকার এবং এখানকার শিশুরাও অনেক মেধাবী। সামান্য সুযোগ পেলেই তারা অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবে। কাকতাড়–য়ার সংগঠক মোহাম্মদ নিয়াজ বলেন, শিশুদেরকে আমরা ক্যামেরা পরিচালনা করতে শিখিয়েছি। ফটোগ্রাফি ও ভিডিওগ্রাফির বেসিক নিয়মগুলো বলে দিয়েছি, সাথে সাথে তারা সেটি ধরতে পেরেছে। কর্মশালা শেষে এসওএস শিশু পল্লীর শিশুরা নিজেরা একটি চলচ্চিত্রের শুটিং করে। চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় ও পরিচালনা করে কর্মশালায় অংশ নেয়া শিশুরা।

শেয়ার করুন