সিলেটের সবকটি নদীর পানি বিপদসীমার ওপরে, জনমনে আতংক

কোম্পানীগঞ্জে বন্যা কবলিত একটি এলাকা

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিলেটের সবকটি নদীর পানি বিপন সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে বন্যার কবলে পড়েছে সিলেটের বেশ কয়েকটি উপজেলা। বন্যার পানিতে কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জসহ আরো কয়েকটি উপজেলার নিচু এলাকার রাস্তাঘাট ও ঘরবাড়ি প্লাবিত হয়েছে।

বন্যার কারনে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন অসংখ্য মানুষ। পানিতে তলিয়ে গেছে ঘরবাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অনেক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বন্যার কারনে বিভিন্ন উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মাঠে বন্যার পানি

পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাউবো) সিলেট-এর কন্ট্রোল রুম সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বিকাল ৩টায় সিলেটের কানাইঘাটে সুরমা বিপদসীমার ১১১ সেন্টিমিটার, সিলেটে সুরমা ৩৬ সেন্টিমিটার, শেওলায় কুশিয়ারা বিপদসীমার ১২৩ সেন্টিমিটার, আমলসীদে কুশিয়ারা বিপদসীমার ৬৯ সেন্টিমিটার এবং সারি নদীর পানি বিপদসীমার ২০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হওয়ার আশংকা রয়েছে। বিভিন্ন উপজেলার মানুষজন আতংকের মধ্যে রয়েছেন।

পাউবো, সিলেট-এর নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ শহীদুজ্জামান সরকার জানান, সিলেটের সব কটি নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে সব জায়গায় বন্যার পানি বাড়ছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাষেও ২৪ ঘন্টা বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়েছে। এ অবস্থায় বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি হতে পারে বলে তিনি আশংকা প্রকাশ করেন।

শেয়ার করুন