বিয়ের প্রলোভনে তরুণীর অন্তরঙ্গ ভিডিও ধারণ ॥ কথিত প্রেমিক আটক


গ্রেফতার তৌহিদুর রহমান

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে গোপনে অন্তরঙ্গ গোপন ভিডিও ভাইরাল করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে কথিত এক প্রেমিককে আটক করে সিলেট কতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ। এ ঘটনায় শাহী ঈদগাহ এলাকার ভুক্তভোগী এক তরুণী বাদী হয়ে সিলেট কতোয়ালী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন।
অভিযোগের ভিত্তিতে সিলেট কতোয়ালী থানার এসি ইসমাইল মিয়া ও ওসি সেলিম মিয়া বিষয়টি তদন্ত করেন। তদন্তের পর এএসআই মো. ইসমাইল হোসেন নেতৃত্বে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে একদল পুলিশ ১৯ জুলাই দুপুর ১টায় নগরীর সুরমা পয়েন্ট থেকে প্রমাণসহ ছাতক উপজেলার চিছরাওলী বড়াইয়া বাজার গ্রামের মাহমুদুর রহমানের ছেলে তৌহিদুর রহমান এহিয়া নামক ঐ ব্যক্তিকে আটক করে। ভিকটিম তরুণী একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। প্রায় ৫ থেকে ৬ মাস পূর্বে গ্রেপ্তার তাওহিদুর রহমান এহিয়ার সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় ভিকটিমের। কতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম মিঞা জানান, পর্ণোগ্রাফি আইনে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।
জানা গেছে, এ ঘটনায় মামলা সংক্রান্ত ব্যাপারে ভিকটিম তরুণীকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন (মানবাধিকার) সিলেট বিভাগের প্রেসিডেন্ট ও একদল ফিনিক্স সংগঠনের উপদেষ্টা সৈয়দ সাইদুল ইসলাম দুলাল, একদল ফিনিক্স সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আবু বকর আল আমিন প্রমুখ।

শেয়ার করুন