ফেঞ্চুগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি :: কুশিয়ারা নদীর পানি বাড়ার কারণে সিলেটের ফেঞ্জুগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি ক্রমেই অবনতি হচ্ছে। উপজেলার কয়েকটি এলাকায় নতুন করে পানি ঢুকে যাওয়ায় এসব এলাকার লোকজন পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। অনেকে বাসা বাড়ী ছেড়ে পরিবারের সদস্যদের অন্যত্র সরে গেছেন।

উপজেলার হাসপাতাল থেকে মাইজগাঁও ষ্টেশন সড়কের অংশ বিশেষ ড়ুবে যাওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থাও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। উপজেলার বারহাল, ভরাউট, মইনপুর গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। ফেঞ্জুগঞ্জের প্রধান সড়কের কিছু অংশে পানি উঠেছে।

সোমবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত কুশিয়ারা নদীর পানি ফেঞ্চুগঞ্জ পয়েন্টে বিপদসীমার ১১১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের রিডার গিয়াস উদ্দীন মোল্লা।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি কাঞ্চন চন্দ দেব জানিয়েছেন, এখনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষনা করা হয়নি। তবে উপজেলার ৮/৯ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের যাতায়াতের রাস্তা এবং বিদ্যালয় প্রাঙ্গন জল মগ্ন হওয়াতে ছাত্র ছাত্রী উপস্হিতি কমে গেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মোঃ জসীম উদ্দীন জানিয়েছেন, উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে তবে এখন পর্যন্ত কোন পরিবার আশ্রয় কেন্দ্রে উঠেনি।

শেয়ার করুন