উজানের ঢলে বিশ্বনাথের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: উজানের ঢলের ও অব্যাহত বৃষ্টিপাতে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার নিম্নাঞ্চলের বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বন্যার পানির তলিয়ে গেছে আউশ ধানের জমি ও রোপা আমনের বীজতলা। একই সাথে বিভিন্ন গ্রামের বসতঘরেও পানি প্রবেশ করতে শুরু করেছে। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন জনসাধারণ।

উপজেলার সুরমা নদীর পাড়ে অবস্থিত বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়নের মির্জারগাঁও, মাহতাবপুর, মাধবপুর, কাজীবাড়ি, রাজাপুর, তিলকপুর, হাজারীগাঁও, আকিলপুর, রসুলপুর, সোনাপুর ও খাজাঞ্চী ইউনিয়নের বাওয়ানপুর, চরগাঁও, তেঘরী গ্রাম এলাকার মানুষ সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতির শিকার হচ্ছেন। এছাড়া টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলের উপজেলার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হওয়া বাসিয়া নদীসহ উপজেলার সবকটি নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে উপজেলার দশঘর ও দেওকলস ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকাও প্লাবিত হচ্ছে বন্যার পানিতে।

শনিবার বিকেল বন্যা কবলিত উপজেলার লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদার। এসময় তারা ক্ষতিগ্রস্থদের খোঁজখবর নেন ও শীঘ্রই ক্ষতিগ্রস্থদের সরকারি ত্রাণ প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হলে সাধারণ মানুষকে সাথে সাথে সাহায্য করার জন্য উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বক্ষনিক নজরদারী করার অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন স্কুল, কমিউনিটি সেন্টারসহ আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখার জন্য নির্দেশনাও প্রদান করেছেন তারা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অমিতাভ পরাগ তালুকদার বলেন, টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলের পানিতে উপজেলার নি¤œাঞ্চলের বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। সার্বক্ষণিক পরিস্থিতি নজরদারী করা হচ্ছে ও বর্তমান পরিস্থিতি অবনতি হলে মানুষকে সাহায্য করার জন্য আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত রাখা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে পরিস্থিতি অবহিত করা হচ্ছে ও সরকারি ত্রাণের জন্য যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন