আ ফ ম কামাল ছিলেন ছিলেন প্রচারবিমুখ মানব প্রেমিক

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: ‘দেশের প্রাচীনতম সাহিত্য প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি ও সাবেক সিলেট পৌরসভার চেয়ারম্যান আ ফ ম কামাল ছিলেন একজন শিক্ষানুরাগী, প্রকৃত সমাজসেবক, প্রচারবিমুখ দেশপ্রেমিক তথা মানবপ্রেমিক মানুষ। তার স্মৃতি-অবদান সিলেটের মানুষ সহজে ভুলে যাবে না, শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।’

বুধবার রাতে কেমুসাসের সাহিত্য আসর কক্ষে আ ফ ম কামাল স্মরণে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের গুণীজন মূল্যায়ন সেলের উদ্যোগে আয়োজিত শোকসভায় বক্তারা একথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন সাহিত্য সংসদের সহ-সভাপতি লে.কর্ণেল সৈয়দ আলী আহমদ (অব.)।

সেলের আহবায়ক সেলিম আউয়ালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অধ্যক্ষ মাসউদ খান বলেন, আ.ফ.ম কামাল অনেক গুণের অধিকারী ছিলেন। আমাদের সমাজে এ ধরনের মানুষের সংখ্যা খুবই কম পাওয়া যায়। তার স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্যে আমাদেরকে প্রচেষ্টা চালাতে হবে।

সাবেক সভাপতি হারুনুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আ.ফ.ম কামাল একজন ত্যাগী ও অঙ্গীকারাবদ্ধ মানুষ ছিলেন। বিশেষ করে সাহিত্য সংসদের কাজ পরিচালনা করতে গিয়ে আমি তার প্রমাণ পেয়েছি। অনেক সময় গভীর রাত পর্যন্ত আমরা একসাথে কাজ করেছি।

প্রবীণ কলামিস্ট রফিকুর রহমান লজু বলেন, সিলেটের উন্নয়নমুলক বিভিন্ন কাজ আ.ফ.ম কামালের স্মৃতি বহন করবে। তিনি ছিলেন সত্যিকারের একজন মানবপ্রেমিক। দেশের অভ্যন্তরে থেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তিনি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হিসেবে কাজ করেছেন। যুদ্ধকালীন অবস্থায় দেশের বিভিন্ন তথ্য লোক মারফত আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের ক্যাম্পে তিনি পাঠাতেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুর রহমান চৌধুরী বলেন, আমরা একসাথে বিভিন্ন প্রগতিশীল কাজে যুক্ত ছিলাম। মানুষের প্রতি তার ছিলো অগাধ ভালোবাসা।

শিক্ষাবিদ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জুবায়ের সিদ্দিকী (অব.) বলেন, আ.ফ.ম কামাল একজন নির্লোভ সমাজকর্মী ছিলেন।

সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী বলেন, আ.ফ.ম কামালকে স্মরণ করে আমরা গৌরবান্বিত হচ্ছি। আমাদের প্রয়োজনেই তাকে স্মরণ করতে হবে।

সিলেট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বলেন, আ.ফ.ম কামাল জনগণের বিশ^স্ততা অর্জন করতে পেরেছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে কর্নেল সৈয়দ আলী আহমদ (অব.) বলেন, আ.ফ.ম কামাল একজন মিষ্টভাষী সরল প্রকৃতির সাদা মনের মানুষ ছিলেন। তার মতো আন্তরিকতাসম্পন্ন মানুষ সহজে পাওয়া যায় না।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সাহিত্য সংসদের কোষাধ্যক্ষ সৈয়দ মুহিবুর রহমান, সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মবনু, এডভোকেট কয়সর আহমদ, এডভোকেট আবদুস সাদেক লিপন, আহমদ মাহবুব ফেরদৌস, বেলাল আহমদ চৌধুরী, সাহেদ হোসাইন, মরহুমের বড়ো ছেলে মুর্শেদ কামাল, রুহুল আমিন নগরী।
সভার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা শামসির হারুনুর রশীদ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন অধ্যক্ষ মাসউদ খান।

শেয়ার করুন