সিলেট কয়লা আমদানীকারক গ্রুপের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্টিত

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সিলেট কয়লা আমদানীকারক গ্রুপের ২০১৮-১৯ইং সালের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্টিত হয়েছে।

শনিবার (২২ জুন) নগরীর মেন্দিবাগস্থ গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন গ্রুপের সভাপতি শ্রী চন্দন সাহা। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন জনাব মো. জাহাঙ্গীর মিয়া।

সভার প্রথম আলোচ্য বিষয় অনুযায়ী গ্রুপের ২০১৮-১৯ইং সালের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. আতিক হোসেন। উক্ত বার্ষিক প্রতিবেদনের উপর আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাজী কলন্দর আলী, সাবেক সভাপতি ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, মো. এমদাদ হোসেন, সাবেক সহ-সভাপতি মো. শাহ আলম, মো. কামাল উদ্দিন প্রমুখ। একটি সুন্দর প্রতিবেদন উপস্থাপন করায় বক্তারা সাধারণ সম্পাদককে ধন্যবাদ জানান। সংগঠনকে আরো গতিশীল ও কার্যকর করতে মুল্যবান পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।

সভায় ২০১৭-২০১৮ইং সালের গ্রুপের অডিটকৃত হিসাব, ২০১৯-২০২০ইং সালের গ্রুপের সম্ভাব্য বাজেট পেশ করেন অর্থ-সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর মিয়া। উক্ত অডিট রিপোর্ট ও বাজেটের উপর আলোচনা এবং পর্যালোচনাক্রমে সর্বসম্মতিতে তা গৃহিত হয়।

সভায় ২০১৮-২০১৯ইং সালের হিসাব নিরীক্ষার জন্য অডিটর নিয়োগ ও পারিশ্রমিক নির্ধারণ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা করা হয়। আলোচনা ও পর্যালোচনাক্রমে সর্বস্মতিতে পূর্বের ন্যায় গ্রুপের ২০১৮-২০১৯ইং সালের হিসাব নিরীক্ষার জন্য অডিটর এম আহমদ এন্ড কোং, চাটার্ড একাউন্টেন্টস্কে হিসাব নিরীক্ষক নিযোগ দানের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

বিবিধ আলোচনায় অংশগ্রহণ করে বক্তারা বলেন, তামাবিল পোর্ট কর্তৃপক্ষ দেশের অন্যান্য পোর্টের তুলনায় অধিক হারে পোর্ট চার্জ আদায় করলেও আমদানীকারকদের কোন প্রকার সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। পাথর আমদানীর ক্ষেত্রে বিভিন্ন জটিলতা নিরসন করে কয়লা আমদানীর সাথে পাথর আমদানীর সমস্যা সমাধানের উপর গুরুত্ব প্রদান করা হয়। প্রদত্ত কাষ্টমস্ ডিউটি ব্যবহৃত না হলে তা অন্যান্য বর্ডার ও এলসিতে সমন্বয় করার বিষয়টি এনবিআর এর চেয়ারম্যানের সাথে আলোচনা করে সমাধান করার আহবান জানানো হয়। সভাপতি চন্দন সাহা তার বক্তব্যে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। তিনি বলেন, গ্রুপের সকল সদস্যবৃন্দের আমদানী সংক্রান্ত যেকোন সমস্যার সমাধানে গ্রুপের বর্তমান কার্যকরী কমিটি আন্তরিক। গ্রুপ পরিচালনায় সকল সদস্যবৃন্দের সহযোগীতা কামনা করে সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার কাজ সমাপ্ত ঘোষনা করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মো. আব্দুল হামিদ, সহ-সভাপতি মো. রুহেল আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক শ্রী জয়দেব চক্রবর্ত্তী, আন্তর্জাতিক সম্পাদক শ্রী পাপলু দাস, কার্যকরী সদস্য মো. এমদাদ হোসেন, শামস্ উদ্দিন আহমদ, মো. ফয়জুর রহমান, মো. সোহেল আহমদ, মো. শাহ আলম প্রমুখ।

শেয়ার করুন