পুরো সিলেট নগরী এখন ঈদবাজার

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: বিপণিবিতান থেকে শুরু করে ফুটপাত। সবখানেই মানুষের স্রোত। তিল ধারণের ঠাঁই হচ্ছে না কোথাও। উচ্চবিত্ত থেকে শুরু করে নিম্নবিত্ত। সব শ্রেণীর ক্রেতার পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। চলছে বিকিকিনির ধুম। দম ফেলার ফুরসত নেই বিক্রেতাদেরও। ক্রেতাদের এমন সরব উপস্থিতিই জানান দিচ্ছে সামনে ঈদ।

ক্রেতাদের সরব উপস্থিতি শেষ মুহূর্তে পুরো সিলেট নগরী পরিণত হয়েছে ঈদ বাজারে। শুক্রবার বিকেল থেকেই বাড়তে থাকে ভিড়। তখন থেকেই সবকটি সড়কে ছিল যানজট। তারাবির পর সড়কে নামে জনতার ঢল। জনতার ঢলে সৃষ্টি হয় জনজটের। জনজটের কারণে অনেক সড়কে বন্ধ হয়ে যান চলাচল।

মানুষের উপচেপড়া ভিড়ের কারণে মোড়গুলোতে যানজট ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে। এ কারণে ক্রেতারা হেঁটে এক মার্কেট থেকে অন্য মার্কেটে যাচ্ছেন। আর যানজট নিয়ন্ত্রণে আনতে হিমশিম খেতে হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশসহ স্বেচ্ছাসেবীদের। ট্রাফিক পুলিশ জানিয়েছে, ঈদ উপলক্ষে নগর এবং নগরের বাইরের অসংখ্য মানুষ কেনাকাটা করতে আসছেন নগরীতে। ফলে গাড়ির চাপ বেড়ে যাওয়ায় যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। তাছাড়া মার্কেটগুলোতে পর্যাপ্ত পার্কিং ব্যবস্থা না থাকাও যানজটের অন্যতম কারণ বলে মনে করছেন তারা।

নগরীর বন্দর বাজার থেকে শুরু করে জিন্দাবাজার। তাছাড়া নয়াসড়ক, কুমারপাড়া, আম্বরখানা, রিকাবীবাজারের সব বিপণিবিতানেই ক্রেতাদের ভিড়। বিকিকিনিতে পিছিয়ে নেই ফুটপাতে পসরা সাজিয়ে বসা ব্যবসায়ীরাও। তাছাড়া ভিড় রয়েছে অভিজাত পোশাকের শোরুম আর ফ্যাশন হাউসেও। কেউ পছন্দ করছেন কাপড়, আবার কেউ কিনছেন জুতা। অনেকেই ভিড় করছেন প্রসাধনী সামগ্রীর দোকানেও। ব্যবসায়ীরা বলছেন, চাঁদরাত পর্যন্ত এ জনস্রোত থাকবে।

নগরীর বিভিন্ন বিপণিবিতান ঘুরে দেখা গেছে, উচ্চ থেকে নিম্নবিত্ত সবাই কেনাকাটা করছেন। নামিদামি ব্র্যান্ডের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের বাড়তি সমাগম দেখা গেছে। বর্ণিল আলোকসজ্জায় সাজানো হয়েছে বিভিন্ন বাণিজ্যিক এলাকা। ঈদের বাজার করতে আসা ক্রেতাদের উপস্থিতিতে অভিজাত বিপণিবিতান থেকে ফুটপাত এখন একাকার। ফুটপাতের ব্যবসায়ীরা ফুটপাত ছেড়ে এখন রাস্তাও দখল করে নিয়েছে। ফলে শেষ মুহূর্তে বেচাকেনা ভালোই চলছে তাদের।

শেয়ার করুন