‘নতুন প্রজন্মের প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধ করতে একত্রে কাজ করার আহবান’

ইউকেবিসিসিআই এর প্রতিনিধিদলের সাথে সিলেট চেম্বারের মতবিনিময়

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: নতুন প্রজন্মের প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধ করতে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সাথে ইউকেবিসিসিআইর একত্রে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন ইউকে বাংলাদেশ ক্যাটালিস্ট্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (ইউকেবিসিসিআই) চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট চেম্বার কনফারেন্স হলে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে যুক্তরাজ্য থেকে আগত ইউকে বাংলাদেশ ক্যাটালিস্ট্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (ইউকেবিসিসিআই) এর ২৩ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধিদলের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

সিলেট চেম্বারের প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে তিনি আরও বলেন, ‘ইউকে বাংলাদেশ ক্যাটালিস্ট্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের একটি বাণিজ্য সংগঠন, যেটি বাঙালি কমিউনিটির মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের বিকাশ ও নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে কাজ করে থাকে। সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সাথে ইউকেবিসিসিআই এর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। ইতোপূর্বেও আমরা একাধিক মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়েছি এবং দুই দেশের বিনিয়োগকারীদের উদ্বুদ্ধকরণে কাজ করেছি।’

তিনি সিলেট চেম্বার অব কমার্সের বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, সিলেটের স্থানীয় ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণে কাজ করার পাশপাশি প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের দেশে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধকরণে সিলেট চেম্বারের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। তিনি বৃটেনে গড়ে উঠা বাঙালিদের নতুন প্রজন্মকে দেশে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধকরণে একত্রে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। তিনি মতবিনিময় সভা আয়োজনের জন্য সিলেট চেম্বারের প্রশাসককে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের প্রশাসক আসাদ উদ্দিন আহমদ বলেন, সিলেটের ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়ন ও প্রবাসী বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে নিরলসভাবে কাজ করে সিলেট চেম্বার দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। বিগত দিনগুলোতে সিলেট চেম্বারের প্রচেষ্টায় প্রবাসীদের কল্যাণে অনেকগুলো দাবী-দাওয়া বাস্তবায়িত হয়েছে। বর্তমান সরকারও প্রবাসীদের নিরাপত্তা সহ সবধরণের সুযোগ সুবিধা দিতে প্রস্তুত রয়েছে। তিনি সিলেটের সম্ভাবনাময় খাতসমূহে বিনিয়োগের জন্য প্রবাসীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, আগামীতে সিলেট চেম্বারের নির্বাচিত পরিচালনা পরিষদ সিলেটে বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নয়নে আরো গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে সক্ষম হবে।

সভায় এফবিসিসিআই এর পরিচালক ও সিলেট চেম্বারের প্রাক্তন সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ বলেন, বর্তমান সরকার দেশে বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে সক্ষম হয়েছেন। বিশেষ করে প্রবাসী অধ্যূষিত সিলেট অঞ্চলে বিনিয়োগের অনেকগুলো নতুন ক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছে। তিনি সিলেটে নির্মাণাধীন হাইটেক পার্কে বিনিয়োগের জন্য প্রবাসীদের আহবান জানান।

তিনি উল্লেখ করেন, প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের সুবিধার্থে সিলেট চেম্বারের দাবীর প্রেক্ষিতে সিলেট-ঢাকা রুটে সকাল-সন্ধ্যা ফ্লাইট চালু হয়েছে। তিনি আরো বলেন, পর্যটন খাতে সিলেট অত্যন্ত সম্ভাবনাময় অঞ্চল। সিলেটের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য, নয়নাভিরাম চা-বাগান, হাওড় ও জলপ্রপাত দেশী-বিদেশী পর্যটকদের দারুণভাবে আকর্ষণ করে। এখাতে প্রবাসীদের যেকোন পরিকল্পিত বিনিয়োগ লাভজনক হবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি সিলেটের পর্যটন, আইটি, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা খাতে সরাসরি বিনিয়োগের জন্য প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের আহবান জানান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বারের সাবেক সভাপতি সালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, সাবেক সহ সভাপতি মোঃ এমদাদ হোসেন, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সিলেট কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ শরফুদ্দিন, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবীর, বারাকা গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী চৌধুরী, নুরজাহান হসপিটালের চেয়ারম্যান ডা: নাসিম আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোঃ ইকবাল সিদ্দিকী ও চ্যানেল এস’র মঈন উদ্দিন মঞ্জু।

সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধিদলের সদস্য ব্যরিস্টার আনোয়ার বাবর মিয়া, আব্দুল কাইয়ুম খালিক (জামাল), অলি খান, কামরু আলী, সানাম মিয়া (আতিক), মো: আব্দুল লতিফ (কাওছার), করিম মিয়া (শামীম), রহেমা মিয়া, মিস রুকি খানুম, তারিক আলী, রফিক হায়দার, এম কে জামান (জুয়েল), মোহাম্মদ আকতারুজ্জামান, রোজভিউ হোটেলের চেয়ারম্যান আহাদ উদ্দিন, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, সিলেট জেলা ক্যাটারার্স গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক সালাহউদ্দিন চৌধুরী, মোহাম্মদ রাজুর রহমান, মোঃ শানুর মিয়া প্রমুখ।

শেয়ার করুন