উইন্ডিজের বিপক্ষে সহজ জয় ইংল্যান্ডের

স্পোর্টস রিপোর্টার : একে তো স্বাগতিক, তার উপর গত দুই বছর ধরে ওয়ানডের সবচেয়ে ধারাবাহিক দল ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপে তাই ইংল্যান্ডই হট ফেভারিট- একথা বলার অপেক্ষা রাখেনা। ব্যাটিং, বোলিং কিংবা ফিল্ডিং- তিন বিভাগেই দুর্দান্ত ইংলিশ রা। অন্যদিকে পাওয়ার হিটিংকে শিল্পের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া এক ঝাঁক হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান নিয়ে গড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে তাই ইংল্যান্ডের একটি জমজমাট লড়াই-ই আশা করা হচ্ছিলো। কিন্তু তা আর জমলো কই। ইংলিশ বোলিং তোপে অসহায় আত্মসমর্পন করে পুরো উইন্ডিজ বাহিনী গুটিয়ে যায় মাত্র ২১২ রানেই। জো রুটের সেঞ্চুরিতে ১০১ বল বাকি থাকতেই সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছায় মরগান বাহিনী।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেওয়া ২১৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে খুব একটা বেগ পেতে হয় নি ইংল্যান্ডকে। তবে ম্যাচের প্রথম ইনিংসে চোট পাওয়ায় নিয়মিত ওপেনার জেসন রয়কে দেখা যায়নি ওপেনিংয়ে। বেয়ারস্টোর সাথে ওপেন করতে আসেন জো রুট। বেয়ারস্টো ৪৫ রান করে ফিরে গেলেও জো রুট বাকি কাজটি অনায়াসে শেষ করে আসেন। বেয়ারস্টো ফিরে যাওয়ার পর ইংল্যান্ড সবাইকে অবাক করে দিয়ে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ক্রিস ওকসকে। ক্রিস ওকসও খুব একটা হতাশ করেননি। ৫৪ বল থেকে ৪০ রানের দারুন এক ইনিংস খেলে গ্যাব্রিয়েলের বলে  আউট হয়ে ফেরত যান। শেষদিকে স্টোকসকে (১০) সাথে নিয়ে মাত্র ৩৩.১ ওভারেই ইংল্যান্ড কে জয় এনে দেন রুট।

জো রুট ৯৩ বল থেকে তুলে নেন ক্যারিয়ারের ১৬তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি। চলতি বিশ্বকাপে এটি রুটের দ্বিতীয় শতক।  চার ম্যাচে ২ সেঞ্চুরি ও ১ ফিফটিতে ২৮৯ রান করে এ বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক জো রুটই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে দুটি উইকেটই নেন গ্যাব্রিয়েল।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ইংলিশদের গতির তোপে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যানরা। একের পর এক উইকেট দিয়ে আসতে থাকেন। গেইল (৩৬), হেটমায়ার (৩৯), কিংবা নিকোলাস পুরান (৬৩) আশা দেখালেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। আন্দ্রে রাসেল ঝড় তুললেও তাকে ভয়ংকর হতে দেননি মার্ক উড। ৪৪.৪ ওভারেই সব উইকেট হারিয়ে তাই উইন্ডিজ করতে পেরেছিল মাত্র ২১২ রান।

ইংল্যান্ডের হয়ে আর্চার ও মার্ক উড তিনটি করে উইকেট লাভ করেন। এছাড়া জো রুট দুটি, ক্রিস ওকস ও লিয়াম প্ল্যাংকেট একটি করে উইকেটের দেখা পান। বল হাতে দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেটের পর ব্যাট হাতে অপরাজিত শতক হাঁকানো জো রুট ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন।

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২১২/১০, ৪৪.৪ ওভার (পুরান-৬৩, হেটমায়ার-৩৯, গেইল- ৩৬; মার্ক উড-১৮/৩ আর্চার- ৩০/৩)

ইংল্যান্ড: ২১৩/২, ৩৩.১ ওভার (জো  রুট- ১০০*, বেয়ারস্টো- ৪৫, ক্রিস ওকস- ৪০; গ্যাব্রিয়েল- ৪৯/২)

ফল: ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্যা ম্যাচ: জো রুট

শেয়ার করুন