হাত ব্যাগ-মোবাইল পেয়ে ফিরিয়ে দিলেন কনস্টেবল

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: সড়কে হাতব্যাগ ও মোবাইল ফোন পেয়ে তা মালিককে ফিরিয়ে দিয়েছেন পুলিশ কনস্টেবল শুভাশিষ। সততার পরিচয় দেওয়া শুভাশিষ সিলেট মহানগরের শাহপরাণ (রহ.) থানায় কর্মরত আছেন। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কুড়িয়ে পাওয়া হাত ব্যাগ ও মোবাইল ফোনটি প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর করেন।

বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন পুলিশ হেডকোয়ার্টারে কর্মরত সদস্য মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান। মানবিক শুভাশিষের সততা বর্তমান সমাজের জন্য দৃষ্টান্ত হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। পাঠকদের জন্য তার ফেসবুক স্ট্যাটাস হুবহু তুলে ধরা হলো।

শুভাশিষ। পুলিশ সদস্য। শাহপরান (রঃ) থানায় কর্মরত আছেন। জেলরোড থেকে মোটরসাইকেল যোগে চৌহাট্রা পয়েন্টে যাওয়ার পথে নগরীর নয়াসড়ক পয়েন্ট এ রাস্তায় একটি হাত ব্যাগ ও মোবাইল ফোন রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে নিজের হেফাজতে নেন এবং আশেপাশে প্রকৃত মালিককে খোঁজতে থাকেন। অনেক খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে মোবাইল ফোনে প্রকৃত মালিকের সাথে কথা হয়। অপরপ্রান্ত থেকে কান্না জড়িত কন্ঠ সুর শোনা যায়। ভদ্র মহিলাকে তার হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ, টাকা ও মোবাইল ফোন নিতে ঈদগাহ ভিউ রেস্টুরেন্টে আসতে বলা হয় এবং তার সমস্ত মালামাল নিরাপদে আছে বলে শুভাশিষ জানান।

ছকিনা খাতুন (ছন্মনাম)। বাসা কাজীটুলা। দুই সন্তানের জননী। অভাবের সংসার। তারমাঝে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র হারিয়ে চোঁখে, মুখে হতাশার ছাপ। শুভাশিষ এর ফোনালাপে কিছুটা স্বত্বি পেলেন ছকিনা খাতুন। রাত ০৯.৩০ ঘটিকার সময় ঈদগাহ ভিউ রেস্টুরেন্টে এ ছকিনা খাতুন হাজির হয়ে হারিয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন, ব্যাগ, টাকা শুভাশিষ থেকে গ্রহণ করেন। ছকিনা খাতুন পুলিশের উদারতা দেখে রীতিমতো অবাক ও মুগ্ধ হয়েছেন।

হারানো জিনিস ফিরে পাওয়ার আনন্দের চেয়ে বড় আনন্দ আর কিছু হয়না। শ্রদ্ধার সাথে শুভাশিষকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করলেন। ছকিনা খাতুনের নির্মল হাসিটা পুলিশের প্রতি আমাদের দৃঢ়তা আরও সুদৃঢ় করে।

শেয়ার করুন