সুবীর নন্দী আর নেই

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: আধুনিক বাংলাগানের বরেণ্য শিল্পী সুবীর নন্দী আর নেই। সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একুশে পদকপ্রাপ্ত এ শিল্পী বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার ভোর সাড়ে চারটায় মারা গেছেন।

সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত শিল্পীর মেয়ে ফাল্গুনী নন্দী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কিডনি ও হার্টের জটিলতায় আক্রান্ত সুবীর নন্দীকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গত ১৪ এপ্রিল রাতে অ ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। এক পর্যায়ে লাইফ সাপোর্টও দেওয়া হয়পরো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় উন্নত চিকিৎসার জন্য গত ৩০ এপ্রিল সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয় সুবীর নন্দীকে।

সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দুই দিন পর সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও পরে অবনতি হতে থাকে। গত কয়েকদিনে পর পর তিনবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। মঙ্গলবার ভোরে তিনি চলে যান জীবনের অনিবার্য গন্তব্যে।

শিল্পীর মরদেহ কবে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান ফাল্গুনী নন্দী।

এক নজরে সুবীর নন্দী

জন্ম: ১৯৫৩ সালের ১৯ নভেম্বর

জন্মস্থান: হবিগঞ্জের তেলিয়াপাড়া চা বাগান

বাবা: সুধাংশু নন্দী

মা: পুতুল রানী

পড়াশোনা: স্নাতক, বিগঞ্জ বৃন্দাবন কলেজ

সঙ্গীতে হাতখড়ি: মায়ের কাছে ছয় বছর বয়সে

বেতার গান : ১৯৬৩ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে

প্রথম প্লেব্যাক: ১৯৭৬ সালে ‘সূর্যগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে

প্রথম একক অ্যালবাম: সুবীর নন্দীর গান (১৯৮১ সাল)

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার: পাঁচবার (১৯৮৪,১৯৮৬, ১৯৯৯, ২০০৪, ২০১৫)

একুশে পদক: ২০১৯

জনপ্রিয় গান: ‘দিন যায় কথা থাকে’, ‘ও আমার উড়াল পঙ্খী রে’, ‘একটা ছিল সোনার কন্যা’, ‘পাখিরে তুই দূরে থাকলে’, ‘কত যে তোমাকে বেসেছি ভাল’, ‘আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়’, ‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’, ‘তুমি এমনই জাল পেতেছো সংসারে’ প্রভৃতি।

শেয়ার করুন