সিলেটের প্রথম শিক্ষা অফিসার বেগম নূর রওশন চৌধুরী দাফন সম্পন্ন

সিলেটের সকাল রিপোর্টসিলেটের প্রথম মহিলা জেলা শিক্ষা অফিসার বেগম নূর রওশন চৌধুরী( নেহার) এর দাফন রবিবার বাদ জোহর হযরত শাহজালাল (রহ.) দরগাহ কবরস্থানে সম্পন্ন হয়। তিনি সিলেট নগরীর কুয়ারপার নিবাসী প্রফেসর মরহুম আব্দুল মান্নান চৌধুরীর সহধর্মিণী।
এর আগে নূর রওশন চৌধুরীর নামাজে জানাজা দরগাহ মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। তার নামাজে জানাযায় সিলেটের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা ছাড়াও একমাত্র পুত্র পুলিশের ডিআইজি হেডকোয়ার্টার তৌফিক মাহবুব চৌধুর, জামাতা অতিরিক্ত আইজিপি চৌধূরী আবদুল্লাহ আল মামুন, এসএমপি কমিশনার গোলাম কিবরিয়া সহ সিলেটের পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।
গত শনিবার ভোর পৌনে ৫টায় নগরীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি ১পুত্র ও ৩ কন্যা, নাতি-নাতনীসহ অসংখ্য আতামীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
মহীয়সী নারী নূর রওশন চৌধুরী রত্নগর্ভা মা ছিলেন। তিনি সুনামগঞ্জ গার্লস স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা এবং সিলেট সরকারি অগ্রগামী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি সিলেটের প্রথম জেলা শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় অবসর গ্রহণ করেন। তিনি পাকিস্তান আমলে ডাবল এমএ এবং বিএড ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি একজন লেখিকাও ছিলেন।
উল্লেখ্য, তাঁর পিতা গোলাপগঞ্জ ফুলবাড়ি নিবাসী, মরহুম আব্দুজ জহির চৌধুরী (কিনু মিয়া পেশকার)। তিনি মরমী কবি হাছন রাজার ছেলে মরহুম দেওয়ান একলিমুর রাজার মেয়ে হেলাল বদন চৌধুরীর ২য় কন্যা এবং মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক সাবেক মন্ত্রী দেওয়ান ফরিদ গাজী ছিলেন নূর রওশন চৌধুরীর ভগ্নিপতি।
তাঁর একমাত্র পুত্র পুলিশের ডিআইজি হেডকোয়ার্টার তৌফিক মাহবুব চৌধুরী ছাড়াও ৩ কন্যা ১ম তাহেরা নুসরাত চৌধুরী স্বামী মুফতি সিরাজ উদ্দিন মোহাম্মদ জাহেদ দরগা মুফতি বাড়ির বাসিন্দা এবং আন্তর্জাতিক রুটের জাহাজের ক্যাপ্টেন, ২য় কন্যা ডা. তৈয়বা মোশাররত চৌধুরী, একজন প্রথিতযশা চিকিৎসক। ৩য় কন্যা তাহজিবা আশরাত চৌধুরী (ডালিয়া) স্বামী রনক চৌধুরী দুজনই যুক্তরাজ্য প্রবাসী। সেখানে কর্মরত আছেন।
এদিকে, সিলেটের প্রথম মহিলা জেলা শিক্ষা অফিসার নূর রওশন চৌধুরীর মৃত্যুতে সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, সিলেট জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এ জেড রওশন জেবিন রুবা, সিলাম শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. মুক্তাদির একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ স¤পাদক হাজী এম আহমদ আলী শোক প্রকাশ করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

শেয়ার করুন