গ্রেফতারের দেড়ঘন্টার মাথায় মুক্তি পেল ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাজিফা আনজুম নিশাতকে ধর্ষণ ও হত্যার হুমকি দেওয়া ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার হোসেন চৌধুরী জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর বন্দরবাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। তবে গ্রেফতারের দেড়ঘন্টার মাথায় জামিনে ছাড়া পান তিনি।

এসএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা সিলেটের সকালকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘গ্রেফতারের পর তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তবে এর আগে আদালত থেকে সে জামিন নিয়ে বের হয়েছিল বলে পুলিশকে জানায়। এবং তার জামিনের কাগজপত্র থানায় দেখালে পুলিশ তাকে ছেড়ৈ দেয়।’

এর আগে গতকাল সোমবার রাতে ছাত্রলীগ নেতা সারোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন হাসপাতালের পরিচালক ডা.ফেরদৌস। গত শনিবার (১১ মে) ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাজিফা আনজুম নিশাতের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং-৬১৭ দায়ের) করেছিলেন ডা. ফেরদৌস হাসান।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে শিক্ষানবিশ চিকিৎসককে অকথ্য ভাষায় গালমন্দের পাশাপাশি অস্ত্র উঁচিয়ে হত্যা এবং ধর্ষণের হুমকি দেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক আজাদুর রহমানের অনুসারী দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সারোয়ার হোসেন।

চিকিৎসকদের দাবি, চিকিৎসা নিতে এসে হাসপাতাল কম্পাউন্ডে অস্ত্র নিয়ে প্রকাশ্য হত্যার হুমকির কারণে তারা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন। তবে অভিযুক্ত ওই ছাত্রলীগ নেতার দাবি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করায় তিনি রেগে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

শেয়ার করুন