অনন্ত হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন ভাই

সিলেটের সকাল রিপোর্ট:মুক্তমনা লেখক ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশ হত্যার চার বছর পর এই হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন অনন্ত বিজয়ের বড় ভাই ও এই মামলার বাদী রত্নেশ্বর দাশ।

মঙ্গলবার (৭ মে) সিলেটের অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মমিনুন্নেছার আদালতে উপস্থিত হয়ে সাক্ষ্য প্রদান করেন তিনি।
অনন্ত বিজয়ের ভগ্নীপতি আ্য়কর আইনজীবী সমর বিজয় শী শেখর সংবাদ মাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে অনন্ত বিজয় দাশের বড় ভাই রত্নেশ্বর দাশ আদালতে উপস্থিত হয়ে অনন্ত হত্যাকান্ডের বর্নণা দেন। তবে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে শুনানি হওয়ার কথা থাকলেও আদালতে মামলার সব আসামীরা উপস্থিত না থাকায় শুনানি হয়নি।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ১২ মে সকাল সাড়ে ৮টায় সিলেট নগরীর সুবিদবাজার এলাকার নূরানি আবাসিক এলাকায় অনন্ত বিজয় দাশকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। তিনি সুবিদবাজারের বনকলাপাড়ার নূরানি এলাকার ১২/১৩ নম্বর বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে বসবাস করতেন। ঘটনাস্থল থেকে অনন্তর বাড়ি ৩০ থেকে ৪০ গজ দূরে।

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেন অনন্ত বিজয়। এরপর পূবালী ব্যাংকে কর্মজীবন শুরু করেন। সিলেটের জাউয়াবাজারে অবস্থিত পূবালী ব্যাংক শাখায় কর্মরত ছিলেন।

এ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে অজ্ঞাত পরিচয় ৪ জনকে আসামি করে অনন্ত বিজয় দাশের বড়ভাই রত্নেশ্বর দাশ বাদী হয়ে সিলেট বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। প্রথমে পুলিশ তদন্ত করলেও পরে মামলাটির তদন্তভার সিআইডি’র অর্গানাইজড ক্রাইম বিভাগকে দেওয়া হয়। আনসার উল্যা বাংলা টিম
এই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে।

শেয়ার করুন