তৃতীয় সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবের পর্দা উঠছে মঙ্গলবার

সিকৃবি প্রতিনিধি: পর্দা উঠছে ‘তৃতীয় সিলেট চলচ্চিত্র উৎসব -২০১৯’ এর। আগামীকাল ( মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল) পর্দা উঠছে এ উৎসবের। স্বাধীনধারার চলচ্চিত্র নির্মাণকে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে ২০১৭ সাল থেকে যাত্রা শুরু হয় এই উৎসব তিন দিনব্যাপী এটি উৎসবের তৃতীয় আসর।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের আয়োজনে এবারের আসরে বিশ্বের ১১১ টি দেশ থেকে স্বল্প ও পূর্ণদৈর্ঘ্য ৩০৩৬ টি চলচ্চিত্র জমা পড়ে । যার মধ্যে থেকে বাছাইকৃত ৯৬ টি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও চারটি পূর্ণদৈর্ঘ্য মিলেয়ে মোট ১০০ টি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। জুরি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র নির্মাতা আশরাফ শিশির, অভিনেতা মনোজ কুমার, নির্মাতা মুক্তাদির ইবনে সালাম ও ভারতীয় চলচ্চিত্র সমালোচক সিদ্ধার্থ মাইতি। উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে বিপনীবিতান মাহা।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় অডিটরিয়াম ও কৃষি অনুষদের তৃতীয় তলার কনফারেন্স হলে এই দুই ভেন্যুতে প্রথম্ব দ্বিতীয় দিন চলচ্চিত্র প্রদর্শন চলবে। অনুষ্ঠানের তৃতীয় দিনে থাকছে চলচ্চিত্র বিষয়ক সেমিনার।

মঙ্গলবার সকাল দশটায় এই চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন করবেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ সায়েম উদ্দিন আহমেদ। উদ্বোধনী দিনে আরো উপস্থিত থাকবেন ভারত থেকে আগত অন্দরকাহিনী চলচ্চিত্রের নির্মাতা অর্নব মিদ্য। এছাড়াও বাংলাদেশের খ্যাতিমান চলচ্চিত্রকার ও গাড়িওয়ালা চলচ্চিত্রের পরিচালক আশরাফ শিশির সহ দেশবিদেশ থেকে আগত নানা চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বগন উপস্থিত থাকবেন। উৎসবের দ্বিতীয় দিনে উপস্থিত থাকবেন তৃতীয় সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবের জুরি ও পরিচালক মুক্তাদির ইবনে সালাম এবং অভিনেতা মনোজ কুমার।

উদ্বোধনী দিনে দুটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ভারতীয় চলচ্চিত্র ও প্রথমবারের মতো বাংলদেশে মুক্তিপ্রাপ্ত অর্নব মিদ্য পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘অন্দরকাহিনী’। ২৩ এপ্রিল বিকাল তিন টায় প্রদর্শিত হবে ছবিটি এবং বিকাল পাঁচটায় রয়েছে বাংলাদেশী পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র রাশেদ নুর পরিচালিত ‘Bangali Beauty’। দ্বিতীয় দিন বিকাল তিনটায় ও পাচঁটায় দেখানো হবে মুক্তাদির ইবনে সালাম পরিচালিত ছবি ‘রঙের দুনিয়া’ ও আরিফুর রহমান পরিচালিত ‘মাটির প্রজার দেশে’।

উৎসবে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম স্পেন, চীন, সুইজারল্যান্ড, মেক্সিকো, জর্জিয়া, বুলগেরিয়া, কুয়েত, জার্মানি, ভারত, ফিলিপাইন, ইরাক,ইরান , লিথুনিয়া, তাইওয়ান, যুক্তরাজ্য, পোল্যান্ড, নেপাল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, রোমানিয়া , ব্রাজিল, আজারবাইজান, বাহরাইন, বেলজিয়াম, ভুটান, কানাডা, ইটালি,নরওয়ে,জাপান, মালয়েশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, এবং স্বাগতিক বাংলাদেশ।

এই উৎসবে এসে চলচ্চিত্র উপভোগ করে স্বাধীনধারার চলচ্চিত্র নির্মাতাদের উৎসাহ প্রদানের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আয়োজক কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন