তামাকজাত দ্রব্যের উপর উচ্চহারের কর বৃদ্ধি দাবীতে সংহতি প্রকাশ

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন হেলথ সেক্টরের পেপসেপ প্রকল্প, সাতক্ষীরা এর উদ্যোগে তামাকজাত দ্রব্যের উপর উচ্চহারে কর আরোপের দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রবিবার সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সাতক্ষীরা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, পেপসেপ প্রকল্পের কর্মকর্তাগন ও স্বাস্থ্যকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য প্রদান করেন, সাতক্ষীরা পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ শফিক-উদ-দৌলা, পেপসেপ প্রকল্পের সাতক্ষীরা এরিয়া ম্যানেজার সৈয়দ মিজানুর ইসলাম, পেপসেপ প্রকল্পের সেন্ট্রাল এম.আই.এস অফিসার প্রকৌঃ মোঃ নিজাম উদ্দিন এবং অন্যান্য কর্মকর্তাগন।

তাদের সংহতি প্রকাশের দাবীতে তারা বলেন, (১) সকল তামাকপণ্যে’ খুচরা মূল্যের (গজচ) ভিত্তিতে করারোপ করতে হবে; (২) সিগারেটের মূল্যস্তর সংখ্যা ৪ টি থেকে কমিয়ে ২টি (নি¤œ এবং উচ্চ) স্তরে নিয়ে আসা, (৩) মূল্যস্ফীতি এবং আয় বৃদ্ধি সাথে সঙ্গতি রেখে সুনির্দিষ্ট সম্পূরক শুল্ক নিয়মিতভাবে বৃদ্ধি করতে হবে; (৪) করারোপ প্রক্রিয়া সহজ করতে তামাকপণ্যের মধ্যে বিদ্যমান বিভাজন (ফিল্টার/নন ফিল্টার বিড়ি, সিগারেটের মূল্যস্তর, জর্দা ও গুলের আলাদা ট্যারিফ ভ্যালু প্রভৃতি) তুলে দিতে হবে; (৫) সকল ধোঁয়াবিহীন তামাকপণ্য উৎপাদানকারীকে সরকারের করজালের আওতায় নিয়ে আসতে হবে; (৬) একটি সহজ এবং কার্যকর তামাক কর নীতিমালা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন (৫ বছর মেয়াদি) করা, যা তামাকের ব্যবহার হ্রাস এবং রাজস্ব বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে; (৭) সকল প্রকার ই-সিগারেট এবং হিটেড (আইকিউওএস) তামাকপণ্যের উৎপাদন, আমদানি এবং বাজারজাতকরণ নিষিদ্ধ করা; (৮) কঠোর লাইসেন্সিং এবং ট্রেসিং ব্যবস্থাসহ তামাক কর প্রশাসন শক্তিশালী করা, কর ফাঁকির জন্য শাস্তিমূলক জরিমানার ব্যবস্থা করা।

শেয়ার করুন