ছাতকে ছিনতাইর শিকার ট্রাফিক সার্জন ও তার স্ত্রী

ছাতক প্রতিনিধি ॥ ছাতকে ছিনতাইর শিকার হয়েছেন ট্রাফিক সার্জন ও তার স্ত্রী। ছিনতাইকারীরা অস্ত্রের মুখে আড়াই লক্ষাধিক টাকা মুল্যের স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বিকেলে ছাতকস্থ সিলেট পাল্প এন্ড পেপার মিলের ১ম গেট সংলগ্ন সড়কে। এ সময় ছিনতাইকারীদের সাথে ট্রাফিক সার্জনের ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে স্থানীয় জনতার সহযোগিতায় রাজিব আহমদ (১৯) নামের এক ছিনতাইকারীসহ তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল (নং-সিলেট ল-১১-৬৩৮১)সহ আটক করা হয়। রাজিব আহমদ নোয়ারাই ইউনিয়নের কুমারদানী-মোল্লাপাড়া গ্রামের গৌছ মিয়ার পুত্র।
এ ঘটনায় সোমবার রাতে ছিনতাইর শিকার ট্রাফিক সার্জন নিকুঞ্জ দেবনাথ বাদী হয়ে ছিনতাইকারী রাজিব আহমদ ও তার সহযোগী শহরের বাঁশখলা এলাকার রশিদ মিয়ার পুত্র জনি মিয়াকে আসামী করে ছাতক থানায় একটি মামলা(নং-১৭) দায়ের করেন। অভিযোগ থেকে জানা যায়, সোমবার বিকেলে একটি মাইক্রোবাসযোগে বেড়ানোর উদ্দেশ্যে স্ত্রী শিপ্রা রাণী নাথকে সাথে নিয়ে বাসা থেকে বের হন ট্রাফিক সার্জন নিকুঞ্জ দেবনাথ। পেপার মিল সংলগ্ন রাস্তায় পৌঁছলে একটি মোটর সাইকেল যোগে এসে রাজিব ও জনি গাড়ির গতিরোধ করে অস্ত্রের মুখে ৪ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন ও দেড় ভরি ওজনের একটি ব্রেসলেট ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়দের সহায়তায় রাজিব আহমদকে আটক করলেও অপর ছিনতাইকারী জনি মিয়া পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

শেয়ার করুন