শাবিতে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও শিশুদিবস পালন

শাবি প্রতিনিধি:: যথাযোগ্য মর্যাদায় সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত হয়েছে। রোববার দিবসের কর্মসূচির মধ্যে ছিল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, র‌্যালি, স্কুলের ছাত্রছাত্রীদর নিয়ে কুইজ প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ডকুমেন্টারি প্রদর্শন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং প্রার্থনা সভা।

দিবসের শুরুতে শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দীন আহমেদ সকাল সাড়ে ৯টায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম, বিভিন অনুষদর ডিন, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকবৃন্দ এবং বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উপাচার্যের পুষ্পস্তবক অর্পণের পর বিভিন্ন আবাসিক হল, বিভাগ এবং বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পুষ্পস্তবক পরবর্তী শাবি উপাচার্যের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে বর্ণাঢ্য র্যালী বের করা হয়। র‌্যালি পরবর্তী সমাবেশে শাবি উপাচার্য ফরিদ উদ্দীন আহমেদ বলেন, এ জাতি বঙ্গবন্ধুর কাছ চির ঋণী। তাঁর অবদানের ফলেই আমরা স্বাধীন দেশে আমাদের জন্য উন্নতির জন্য কাজ করতে পারছি। এখন প্রতিটি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকল কলেজ তৈরি করা হচ্ছে। স্বাধীনতা না পেলে এগুলা করা সম্ভব হতো না। তবে আমাদর লক্ষ্য থাকতে হবে যাতে আমরা দক্ষ ও যোগ্য জনশক্তি তেরি করতে পারি। এজন্য আমাদের একেবারে প্রথম থেকেই শিশুদের প্রতি যত্নবান হতে হবে। তাদের যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আরও বলেন , অর্থনৈতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। এখনো গরীব মানুষর অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। তারা সমান সুযাগ ভাগ করতে পারে না। তাই অর্থনৈতিক মুক্তি এখন অপরিহার্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন তাই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। আমাদেরকেও নিজ নিজ অবস্থানে কাজ করে যেতে হবে।

শেয়ার করুন