‘ওবায়দুল কাদেরকে সোমবার কেবিনে স্থানান্তর করা হতে পারে’

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে আগামীকাল (সোমবার) আইসিইউ থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হতে পারে।

রোববার (১০ মার্চ) সকালে এমন সম্ভাবনার কথা জানান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পরিচালক প্রফেসর ডা. আবু নাসার রিজভী। তিনি ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন।

আবু নাসার রিজভী আরও জানান, ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের ক্রমাগত উন্নতি হচ্ছে। তিনি চিকিৎসক এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্বাভাবিক কথা বলছেন।

এর আগে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের কার্ডিও থোরাসিক সার্জন ডা. সিবাস্টিন কুমার সামি ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার সর্বশেষ অগ্রগতি পরিবারের সদস্যদের জানান।

এসময় ওবায়দুল কাদেরের সহধর্মিণী বেগম ইসরাতুন্নেসা কাদের, ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মীর্জা, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, সিঙ্গাপুরে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপি, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলামসহ সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপপ্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. আবু নাছের গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, রোববার (৩ মার্চ) সকালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করানো হয় ওবায়দুল কাদেরকে।

মন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের বলেন, ফজরের নামাজ শেষে হঠাৎ করেই শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা হচ্ছিল তার। সঙ্গে সঙ্গে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

চিকিৎসকরা জানান, ওবায়দুল কাদেরের হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়েছে। এর মধ্যে একটিতে রিং পরানো হয়।

ওবায়দুল কাদেরকে চিকিৎসা দিতে ওইদিন রাতেই ঢাকায় পৌঁছে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চার সদস্যের প্রতিনিধি দল। ওই দলে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, একজন সহকারী ও দুজন নার্স ছিলেন।

পরদিন সোমবার (৪ মার্চ) দুপুরে ঢাকায় পৌঁছান উপমহাদেশের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠি। বিএসএমএমইউতে পৌঁছেই সেতুমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন তিনি। পরে তিনিসহ মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে সিঙ্গাপুরে নেওয়ার পরামর্শ দেন। সে পরামর্শ অনুযায়ী সেতুমন্ত্রীকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়।

শেয়ার করুন