সিলেটে ১৪ দিনব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: একুশের চেতনা সমুন্নত রাখার প্রত্যয়ে ও সর্বত্র বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার শপথের মধ্য দিয়ে সিলেটের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অন্যতম চালিকাশক্তি সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের আয়োজনে ১৪ দিনব্যাপী নাট্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় রিকাবিবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়াম মুক্তমঞ্চে বায়ান্ন’র একুশে ফেব্রুয়ারির শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে একুশটি প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে নাট্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সিলেটের প্রবীণ নাট্যজন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নিজামউদ্দিন লস্কর ময়না। দেশাত্ববোধক উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশন করেন ছন্দ নৃত্যালয়ের শিল্পীবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ঢাকার চকবাজারের অগ্নিকান্ডে মর্মান্তিকভাবে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত’র সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানমঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও নাট্যজন ভবতোষ রায় বর্মণ, বাংলাদেশ নৃত্যশিল্পী সংস্থার সভাপতি অনিল কিষণ সিন্হা, প্রবীণ সংগীত শিল্পী হিমাংশু বিশ্বাস, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোকাদ্দেস বাবুল, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আল-আজাদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, প্রবীণ সাংবাদিক ও দৈনিক উত্তরপূর্বের নির্বাহী সম্পাদক তাপস দাস পুরকায়স্থ, এডিশনাল ডেপুটি পুলিশ কমিশনার মো. এহসান উদ্দিন চৌধুরী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক গৌতম চক্রবর্তী, সম্মিলিত নাট্যপরিষদের পরিচালক চম্পক সরকার।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উদ্বোধক বলেন, সম্মিলিত নাট্যপরিষদ বিগত ৩৫ বছর যাবৎ ধারাবাহিকভাবে একুশের চেতনায় নাট্যোৎসব করে আসছে। এই উৎসবের মধ্য দিয়ে বাহান্ন ও একাত্তরের মূল চেতনায় সম্মিলিতভাবে কাজ করতে নাট্যপরিষদ অগ্রণী ভূমিকা রেখে আসছে। তিনি বলেন, সাংস্কৃতিক আন্দোলন ও নাট্য জাগরণের মধ্য দিয়ে সমাজকে সকল অন্যায়, অত্যাচার ও অপকর্মের হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব। তিনি বাঙালির মহান অর্জন বাহান্ন ও একাত্তরের চেতনাকে ধারণ করে এগিয়ে যাওয়ার জন্য নাট্যপরিষদকে ধন্যবাদ জানান।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সহযোগিতায় আয়োজিত এই নাট্যপ্রদর্শনী ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়ে আগামী ১০ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। নাট্য প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছে কথাকলি সিলেট, নবশিখা নাট্যদল সিলেট, নাট্য নিকেতন সিলেট, লিটল থিয়েটার সিলেট, নাট্যমঞ্চ সিলেট, থিয়েটার সিলেট, দর্পণ থিয়েটার সিলেট, থিয়েটার বাংলা, স্পৃহা থিয়েটার, নান্দিক নাট্যদল সিলেট, নাট্যায়ন সিলেট, নগরনাট, দিগন্ত থিয়েটার সিলেট ও নাট্যালোক সিলেট।

উদ্বোধন শেষে প্রদর্শনীর প্রথমদিন সন্ধ্যা ৭টায় অডিটোরিয়াম মূলমঞ্চে কথাকলি সিলেট তাদের প্রযোজনা ‘কোর্ট মার্শাল’ নাটকটি মঞ্চস্থ করে। এস.এম সোলায়মানের রূপান্তর এবং আমিনুল ইসলাম লিটনের নির্দেশনায় নাটকটি হলভর্তি দর্শক উপভোগ করেন। নাটক মঞ্চায়ন শেষে কথাকলি সিলেটের হাতে উৎসব স্মারক তুলে দেন প্রবীণ নাট্যজন, শিক্ষাবিদ, সুনির্মল কুমার দেব মীন।

আজ মঙ্গলবার নাট্য প্রদর্শনীর দ্বিতীয় দিন নবশিখা নাট্যদল সিলেট তাদের নতুন প্রযোজনা ‘বীরাঙ্গনার বয়ান’ নাটকটি মঞ্চায়ন করবে। নাটকটি রচনা করেছেন রওশন জান্নাত রুশনী এবং নির্দেশনায় খোরশেদুল আলম। নাটকটি উপভোগ করার জন্য আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে সকলের প্রতি আমন্ত্রণ জানান। প্রতিদিন বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে অডিটোরিয়াম হল কাউন্টারে নাটকের প্রবেশপত্র পাওয়া যাবে।

শেয়ার করুন