সিলেটে নতুন গ্যাস সংযোগ চালুর দাবি

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: তিন বছর ধরে সারাদেশে বন্ধ রয়েছে গ্যাস সংযোগ। নতুন করে সংযোগ যেমন দেয়া হচ্ছে না ঠিক তেমনিভাবে বর্ধিত সংযোগও রয়েছে বন্ধ। ফলে বিপাকে আছেন সিলেটের বহু মানুষ। আবাসিকের পাশাপাশি বন্ধ রয়েছে শিল্পখাতেও। এ কারণে আটকে রয়েছে উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগ, গড়ে উঠছে না নতুন করে শিল্পপ্রতিষ্ঠানও। গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নতুন করে গ্যাস সংযোগের দাবি তুলেছিলেন সাধারণ জনগণ।

রোববার এ দাবিতে সিলেটে মানববন্ধন কর্মসূচিও পালিত হয়েছে। বিকেল সাড়ে ৪টায় নগরীর কোর্ট পয়েন্টে এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে সিলেট ছাত্র ও যুব কল্যাণ ফেডারেশন নামের একটি সংগঠন। ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এইচ.এম আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তারা সিলেটে নতুন করে গ্যাস সংযোগ চালুর দাবি জানান।

তারা বলেন, জাতীয় গ্রিডে সিলেট বিভাগ থেকে সরবরাহ করা হচ্ছে ২ হাজার মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস। আর দেশের অন্যান্য জেলার বিভিন্ন কূপ থেকে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে ৭ শত মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস। জাতীয় গ্রিডে সর্বমোট ২৭ শত মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস থেকে সিলেটের জন্য ন্যায্য হিস্যা স্বরূপ সরবরাহ করা হচ্ছে ৪৩৯.৭০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস। এ ন্যায্য হিস্যা থেকে প্রতিদিন সিলেটে ৩৬২.৮৬ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস ব্যবহৃত হচ্ছে।

এর মধ্যে ননগ্রিড থেকে প্রাপ্ত গ্যাস ১৬২.৬৭ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস এবং জাতীয় গ্রিডে সিলেট বিভাগ থেকে সরবরাহকৃত ২ হাজার মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস থেকে সিলেট বিভাগের জন্য ২শত মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হয়। যা বৈষম্যমূলক বন্টন। এক্ষেত্রে আমাদের ন্যায্য হিস্যার গ্যাস থেকে উদ্ধৃত্ত প্রায় ৭৭ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস মজুত থাকা সত্বেও বিগত ২০১৫ সালের নভেম্বর মাস থেকে আকর্ষিক রহস্যজনক ভাবে সিলেট বিভাগে নতুন গ্যাস সংযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়। এজন্য সিলেটবাসী ক্ষুব্ধ ও স্তম্ভিত।

বক্তারা বলেন, ন্যায্য হিস্যার মজুদ গ্যাসের তুলনায় সংযোগের চাহিদা অনেক অনেক কম। তাই অবিলম্বে সিলেট বিভাগে নতুন গ্যাস সংযোগ চালুর জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে সিলেটের অভিভাবক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান ও প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদের প্রতি জোর দাবী জানানো হয়।

ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস.এম জাহেদের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট আইনজীবী অধ্যাপক শফিকুর রহমান, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোঃ ইমাদ উদ্দিন নাসিরী, মুক্তিযোদ্ধা রাজিউল ইসলাম তালুকদার রাজু, জালালাবাদ গ্যাস কন্ট্রাক্টর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়শনের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুর রহমান আলম, দপ্তর সম্পাদক আফতাব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সজিব দাস, জালালাবাদ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার প্রভাষক তানভীর আহমদ তোহা, ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির সভাপতি বিদ্যুৎ তরফদার রিংকু প্রমুখ।

শেয়ার করুন