রোহিঙ্গা পুনর্বাসন দীর্ঘায়িত হলে উগ্রপন্থা সৃষ্টি হবে: ড. মোমেন

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বিলম্ব হলে উগ্রবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে’ এমন আশঙ্কার করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। দ্রুত রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

রবিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে ‘বাংলাদেশ এবং মানবাধিকার’ শীর্ষক এক সেমিনারে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, ‘এটা মিয়ানমারের সমস্যা, তাদেরই এর সমাধান করতে হবে। আমরা বলেছি, মিয়ানমারেই একটি সেফ জোন তৈরি করে রোহিঙ্গাদের সেখানে প্রত্যাবাসন করা হোক। এখানে বিশ্বাসের একটি ব্যাপার আছে। এ জন্যই আমরা বলছি, ভারত, চীন, আশিয়ানভুক্ত দেশগুলো মিয়ানমারকে এটা দেখভাল করবে। কারণ, তাদের প্রতি মিয়ানমারের আস্থা আছে।’

মানবাধিকার ইস্যুতে বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে রোল মডেল উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় না দিলে সেখানে গণহত্যা হতো। আর সেটা হলে বিশ্বনেতারা মুখ দেখাতে পারতেন না।’

বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে। কিন্তু এখনো পুনর্বাসনের কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গা পুনর্বাসন দীর্ঘায়িত হলে বাংলাদেশে উগ্রপন্থার সৃষ্টি হতে পারে।’

শেয়ার করুন