বিশ্বম্ভরপুরে বেইলি ব্রীজ ভেঙ্গে চলাচলে দুর্ভোগ

ফাইল ছবি

বিশ্বম্ভরপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে কাচিরগাতি সড়কের রণবিদ্যা বেইলি ব্রীজ ভেঙ্গে যাওয়ার পর তিনদিনেও এর নির্মাণ কাজ শুরু হয়নি। বিকল্প সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেল, ইজিবাইক ও সিএনজি অটোরিকশা চলাচল করলেও বড় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন পর্যটন কেন্দ্র টাঙ্গুয়ার হাওর, বারেকটিলা, যাদুকাটা নদীসহ বড়ছড়া বেড়াতে আসা পর্যটকসহ বিশ্বম্ভরপুর ও তাহিরপুর উপজেলার মানুষ।

গত ৭ ফেব্রুয়ারী বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার পলাশ পুলের ঘাটে সড়ক ও জনপথের বেইলি ব্রীজ ভেঙ্গে মালামাল বহনকারী ট্রাক খাদে পড়ে ২ জন শ্রমিক নিহত হন এবং আরো ৫জন আহত হন। সড়ক ও জনপথ বিভাগের সতর্কিকরণ সাইনবোর্ড অমান্য করে ৫টন ওজন ধারণ সক্ষম সেতুর উপর দিয়ে ৪০টন মালামাল পরিবহনের কারণে ব্রীজটি ভেঙ্গে যায় বলে সংশ্লিষ্টদের দাবী।

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী অমিয় চক্রবর্তী বলেন, ‘সেতুটি ব্যস্ততম একটি সড়কের ওপর অবস্থিত। হঠাৎ করে এটি ভেঙে যাওয়ায় মানুষ অসুবিধায় পড়েছেন। তবে নুতন বেইলি সেতু নির্মাণের জন্য মালামাল সংগ্রহ করা হচ্ছে। এগুলো সংগ্রহ করার পরপর সেতুর কাজ শুরু হবে। বিকল্পভাবে মানুষের চলাচলের ব্যবস্থা করছি। আমরা আগামী সাত দিনের ভেতর নতুন সেতু নির্মাণ করতে পারবো।’

এদিকে ব্রীজ ভেঙ্গে ২জন শ্রমিক নিহতের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে থানায় মামলা করা হয়েছে। বিশ্বম্ভরপুর থানার এস আই কামাল জানান, দুর্ঘটনার পর সড়ক জনপথ বিভাগকে মামলা দেওয়ার জন্য বার বার অনুরোধ করা হলেও তারা মামলা দেন নি। পরে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় ট্রাক চালক সুমন মিয়া (৩৫)কে আসামী করা হয়।

শেয়ার করুন