ফটো সাংবাদিকদের উপর হামলার নিন্দা এমসি কলেজ রিপোটার্স ইউনিটির

মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ সংবাদদাতা :: সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ক্যাম্পাসে বসন্ত বরণ উৎসবে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় চার ফটো সাংবাদিককে মারধরের ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে কলেজ রিপোটার্স ইউনিটি।

এক বিবৃতিতে রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সোহেল আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক আজহার উদ্দিন শিমুল এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘শতবর্ষী এমসি কলেজ একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। কলেজের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পেশাগত দায়িত্ব পালনের বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা নিয়মিত ক্যাম্পাসে আসেন। উৎসবের সংবাদ সংগ্রহ করতে ক্যাম্পাসে এসে বহিরাগত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হামলার শিকার হয়েছেন সাংবাদিকরা। যা অত্যন্ত দু:খজনক ঘটনা।’

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘সাংবাদিকরা দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করেন। সাংবাদিকদের উপর ছাত্রলীগ কর্মীদের সংঘবদ্ধ এ হামলা স্বাধীন গণমাধ্যম ও মুক্ত সাংবাদিকতার পরিপন্থী। অতীতেও বিভিন্ন সময় সিলেটে সাংবাদিকের উপর হামলার হলেও এসবের কোনও বিচার হয়নি। বিচার না হওয়ার কারণে বাড়ছে এধরণের ঘটনা।’

সাংবাদিকদের উপর হামলার এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনা যেন ভবিষ্যতে এমসি কলেজে ক্যাম্পাসে না ঘটে এজন্য হামলার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বসন্ত উৎসবের অনুষ্ঠানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাতাহাতিতে জড়ায় এমসি ও সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের দুই পক্ষ। এসময় চিত্র ধারণ করতে গেলে আহত হন দৈনিক সমকালের আলোকচিত্র সাংবাদিক ইউসুফ আলী, দৈনিক ভোরের কাগজের অসমিত অভি, স্থানীয় দৈনিক শুভ প্রতিদিনের মিঠু দাস জয় ও অনলাইন টিভি চ্যানেল সিল টিভির কাউসার আহমদ।

শেয়ার করুন