জগন্নাথপুরে টি.কে. ফাউন্ডেশনের বৃত্তি বিতরণ ও স্বাস্থ্য ক্যাম্প

 জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ, ফ্রি স্বাস্থ্য ক্যাম্পসহ নানা সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে টি.কে. (তাউজ মিয়া মাস্টার ও খায়রুন্নেছা) ফাউন্ডেশন। উপজেলার হলদিপুর ইউনিয়নের বেতাউকা গ্রামে গত শনিবার এসব কর্মসূচি পরিচালনা করা হয়।

সকাল ১১টায় শুরু হয় তাউজ মিয়া মাস্টার স্মৃতি বৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠান। টি.কে. (তাউজ মিয়া মাস্টার ও খায়রুন্নেছা) ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. সিদ্দিকুর রহমান এডভোকেটের সভাপতিত্বে ও রবিউল ইসলাম মান্নার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রোটারিয়ান পিপি নজরুল ইসলাম, রোটারিয়ান পিপি এম এ মুকিত, রোটারিয়ান পিপি সাব্বির আহমদ, সাইফুল ইসলাম সিদ্দিকী টিপু, রোটারিয়ান আহমদ রশিদ চৌধুরী, সাংবাদিক অমিত দেব, এডভোকেট রিপন আহমদ স্থানীয় ইউপি সদস্য জুয়েল মিয়া।

বক্তারা বলেন, প্রায় ৮০ বছর আগে এ এলাকায় তাইজ মিয়া মাস্টার একমাত্র গ্রেজুয়েট ছিলেন। তিনি জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত শিক্ষকতা করেছিলেন। মানুষের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে তার অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে । তারা বলেন, এ এলাকায় শিক্ষার বিস্তার, দারিদ্র দূরীকরণ, স্বাস্থ্যসেবা ও বেকারত্বের হার দূরীকরণে টি.কে. ফাইন্ডেশন ব্যাপক কাজ করছে। তাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত রাখারা অনুরোধ জানান বক্তারা। অনুষ্ঠানে ৩১টি স্কুলের ৭৬জন শিক্ষার্থীকে নগদ অর্থ, বই ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের নিয়ে উপস্থিত বুদ্ধি পরীক্ষা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ১০জন শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করা হয়।

সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ফ্রি চক্ষু শিবির, ডায়াবেটিস ও ব্লাড প্রেসার পরীক্ষা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। ক্যাম্পে প্রায় পাঁচশতাধিক মানুষকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হয়। অপারেশন জন্য নির্বাচিত রোগীদের বিনামূল্যে অপারেশন ও সিরিয়াস ডায়াবেটিস রোগীদের সিলেটে এনে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান। দিনভর চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞ ডা. ললিত মোহন নাথ, জালালাবাদ চক্ষু হাসপাতালের ডা. জাকির হোসেন, প্যারামেডিক্স সজল দেব, মো. পিংকু আব্দুুর রহমান, সুধাংশু মল্লিক, মো. আবু সাঈদ ও খাইরুন আম্বিয়া জামি।

এদিকে বেতাউকা গ্রামে তাইজ মিয়া মাস্টার একাডেমির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন অতিথিবৃন্দ। টি.কে. ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. সিদ্দিকুর রহমান এডভোকেট জানান, ইতোমধ্যে এ একাডেমির আওতায় বয়স্কদের সহীহ নামাজ শিক্ষা ও তরুনদের জন্য ইংলিশ স্পোকেন কোর্স শুরু হয়েছে। এ একাডেমিতে কম্পিউটার ট্রেনিং, সেলাই প্রশিক্ষণ, ফ্রি ইন্টারনেট, লাইব্রেরি, খেলাধূলার সরাঞ্জামাদি বিতরণসহ নানা কার্যক্রম চালানো হবে।

শেয়ার করুন