হৃদরোগে মৃত্যুহার হার কমাতে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখা জরুরী : ব্রিগেডিয়ার মালিক

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ জানেনা যে তার উচ্চ রক্তচাপে ভোগছেন। এই জন্যই যে তারা কখনো রক্তচাপ মাপার প্রয়োজন মনে করেনা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষণায় দেখা যায় বাংলাদেশের ২৫ বছর বা তার বেশী প্রাপ্ত বয়সীদের মধ্যে প্রতি ৫ জনের ১জন উচ্চ রক্তচাপে ভোগছেন। অসচেনতার কারনে তারা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা গ্রহণ করেন না।

শনিবার সিলেট ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপতালের সম্মেলন কক্ষে রিসন্ড সেইফ লাইফ ইউএসএর আর্থিক সহযোগিতায় এবং ন্যাশনাল হার্ট ফর্ডন্ডেশন অব বাংলাদেশের সহযোগিতার আয়োজিত এক গোল টেবিল বৈঠকে সভাপতির ভাষনে ন্যাশনাল হার্ট ফডন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি জাতীয় অধাপক ব্রিগেডিয়ার (অব.) এ. মালিক একথা বলেন।

তিনি আরও বলেন অর্থনৈতিক উন্নয়নকে ধরে রাখতে হলে স্বাস্থ্যকে সঠিক রাখতে হবে। চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যেকোন রোগের রোগীর প্রথমে রক্তচাপ মাপতে হবে। কারন উচ্চ রক্তচাপ মানবদেহে ঘাতক হিসেবে কাজ করছে। তিনি বলেন আমাদের মধ্যে সচেনতার অভাবে এই অসংক্রামক ব্যাধি ক্রমেই ভয়াবহ আকার ধারন করছে।

ন্যাশনাল হার্ট ফডন্ডেশন সিলেটের পাবলিসিটি সেক্রেটারি আবু ওলেব মুরাদের মডিউটারে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট স্বাস্থ্য বিভাগের বিভাগীয় পরিচালক পুচাওনু, সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা: এ কে মাহবুবুল হক, ঢাকা ন্যাশনাল হার্ট ফার্ডন্ডেশন হাসপাতালের চীফ কনসালটেন্ট প্রফেসর ডা: ফজিলাতুন নেছা মালিক, মহা সচিব প্রফেসর খন্দকার আব্দুল আওয়াল রেজভি, এনসিজিসি জিজিএইচএস’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা: রায়হান-ই-জান্নাত, সিভিল সার্জন ডা: হিমাংশু লাল রায়, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি তাপস দাশ পুরকায়স্থ, সিলেট প্রেস ক্লবের সভাপতি ইকরামুল কবির, অনলাইন প্রেসক্লবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ডা. শাহাব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডা. আমিনুর রহমান লস্কর, সিইও কর্ণেল (অব.) শাহ আবিদুর রহমান, গোলাপগঞ্জ উপজেলার ইউএনও মামুনর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তাওহিদ আহমদ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রজেক্ট ডিরেক্টর প্রফেসর ডা. সোহেল রেজা চৌধুরী প্রজেক্টের বিভিন্ন দিক নিয়ে বিস্তারিত আলোকপাত করেন। পরে গত ৩ মাসের কাজের অগ্রগতি তুলে ধরেন। প্রজেক্ট ম্যানেজার ডা. মাহফুজুর রহমান ভুইয়া। শেষ পর্যায়ে সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেটের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা আশ্বাস প্রদান করে বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের সভাপতি প্রফেসর ডা. এম. এনায়েত উল্লাহ।

শেয়ার করুন