শিলংয়ের তীর’র বিরুদ্ধে অ্যাকশনে পুলিশ, লালদিঘীরপাড়ে আটক ১১

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলংয়ে ‘তীর কাউন্টার’ নামের অনলাইন লটারিকে কেন্দ্র করে সিলেটে চলে আসছিলো জুয়া খেলার মহোৎসব। এই জুয়ার বিস্তার এমন হয়েছে যে, শহর কিংবা গ্রামের হাট-বাজার সবখানেই এই সিন্ডিকেটের লোকদের দেখা মেলে।

বিভিন্ন ছোট চায়ের টংয়ে বসে তারা লোকদের সত্তর গুণ লাভের আশা দেখিয়ে ‘তীরের ঘর’ বুকিং করাতেনে এজেন্টরা। আর তাদের লোভনীয় অফারের ফাঁদে পড়ে সর্বশান্ত গরীব দিনমজুর, রিক্সাচালক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী-সহ বিভিন্ন স্থরের লোকেরা। বাদ পড়ছেলিনে না উচ্চবিত্তরাও। এভাবেই অবৈধ এই চক্রটি লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল।

দীর্ঘদিন ধরে এই খেলা চললেও এদের বিরুদ্ধে কোন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছিল না। ফলে সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলাগুলোর গন্ডি পেরিয়ে নগরীতেও ছড়িয়ে পড়েছিল ডিজিটাল পদ্ধতির জুয়া ‘শিলংয়ের তীর’। এবার তীর শিলংয়ের বিরুদ্ধে নড়েচড়ে বসেছে সিলেটের প্রশাসন।

আটককৃতরা হচ্ছে- শ্যামল মদক (৪৫), মোবারক হোসেন (১৮), আকিল হোসেন (২৫), সংকর চন্দ্র দে (৩০), কৃষ্ণ ঋষি (২৮), শরীফ (২৫), ফারুক আহমদ (২৪), জাহাঙ্গীর (২৫), তাজুল ইসলাম (২৮), কামাল আহমেদ (৬০) ও আলী আমজাদ (৪৫)।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া এন্ড কমিউনিটি সার্ভিস) মো. জেদান আল মুসা বিষয়টি নিশ্চিত করেন। আটককৃতদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী মডেল থানা প্রকাশ্য জুয়া আইনের ধারা-১৮৬৭, ৩/৪ উপধারায় মামলা (নং-৩৪ তারিখ-২৮/০১/২০১৯) দায়ের হয়েছে।

এছাড়া বোর্ডের মালিক সাইফুলকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তাছাড়া এই চক্রের মূলহোতাদের চিহ্নিত করে তাদের ধরতে গোয়েন্দা পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে বলেও জানান তিনি।

শেয়ার করুন