শামসুর রহমান স্মৃতি বৃত্তি পেল সিলেটের ৩০৮ শিক্ষার্থী

জাতি হিসেবে এগিয়ে যেতে হলে শিক্ষার বিকল্প নেই ॥ মেয়র আরিফ

ইংরেজি শিক্ষার ওপর জোর দেয়ার তাগিদ চ্যানেল এস চেয়ারম্যানের

শিক্ষার উন্নয়নে এ ফাউন্ডেশন গঠিত হয়েছে ॥ সুফি সুহেল আহমদ

সিলেটের সকাল রিপোর্ট ॥ ২০ তম শামসুর রহমান স্মৃতি প্রাথমিক ও জুনিয়র বৃত্তি পেল সিলেটের ৩০৮ জন শিক্ষার্থী। বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের হাতে শনিবার এ বৃত্তির সনদপত্র ও সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। সকাল ১১টায় সিলেট নগরীর রিকাবীবাজারস্থ কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে বৃত্তিপ্রাপ্তদের হাতে বৃত্তি তুলে দেয়া হয়।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। নাট্যশিল্পী আফজাল হোসেনের সঞ্চালনায় এতে প্রধান বক্তা ছিলেন-চ্যানেল এস ইউকে-এর চেয়ারম্যান আহমদ উস সামাদ চৌধুরী জেপি।

ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সূফী সুহেল আহমদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ময়মনসিংহ গালর্স ক্যাডেট কলেজের সাবেক উপধ্যক্ষ পূর্ণেন্দু কুমার রায়, সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাস্টির সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ, গ্রেটার সিলেট ডেভলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকে (জিএসসির) সাউথ ইস্ট রিজিওনের সভাপতি মো. ইসবাহ উদ্দিন, জগন্নাথপুর বৃটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্ট-এর সভাপতি আশিক চৌধুরী, সাউথ ইস্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন, স্কটল্যান্ডের সভাপতি মোবারক আলী ও সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সেক্রেটারী মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমান।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, চ্যানেল এস-এর ইউরোপীয় প্রধান নূরুল ওয়াহিদ, সাংবাদিক মুনশী ইকবাল, আব্দুল জব্বার, সানফ্লাওয়ার কিন্ডার গার্টেনের অধ্যক্ষ শাহাব উদ্দিন শিহাব।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, জাতি হিসেবে আমাদের এগিয়ে যেতে হলে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। তিনি বলেন, ভবিষ্যত প্রজন্মকে উৎসাহ প্রদানের ক্ষেত্রে শামসুর রহমান স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে। তিনি শিক্ষার উন্নয়নে শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের মতো অন্যান্য সংগঠনকেও এগিয়ে আসার আহবান জানান।

চ্যানেল এস ইউকে’র চেয়ারম্যান আহমদ উস চৌধুরী জেপি বলেন, দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি শিক্ষার উপর গুরুত্ব দিতে হবে। জ্ঞান ভিত্তিক শিক্ষার গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশে শিক্ষাক্ষেত্রে মহিলাদের অংশগ্রহণ আবশ্যক। তিনি শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের শিক্ষাবৃত্তি উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান, যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সুফি সুহেল আহমদ জানান, সিলেটের শিক্ষার উন্নয়নের জন্য তারা তার মরহুম পিতা শামসুর রহমানের নামে ১৯৯৮ সালে এ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৫ম ও ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য চালু করা হয়েছে শামসুর রহমান স্মৃতি পরীক্ষা। এবার ৫ম ও ৮ম শ্রেণীর ৩০৮ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব জিবলু রহমান বলেন, চার ভাই বোনের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত শামসুর রহমান ফাউন্ডেশনের সদস্য এখন ২৫০। কেননা, এ ফাউন্ডেশন পরিচালিত বৃত্তি পরীক্ষায় প্রতি বছর আড়াইশ’ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী অংশ নেয় বলে জানান তিনি। গত ২০ বছরে সাড়ে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-সাংবাদিক ইলিয়াস আকরাম, শিল্পী হিমেল দাস, শাহ সিকন্দর শাকির , শিক্ষক শোয়েবুর রহমান , শাহরিয়ার আহমদ প্রমুখ। শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন তারেক মনোয়ারের কুরআন।

শেয়ার করুন