পিআইসি গঠন ও বাঁধ নির্মাণে কোনো দুর্নীতি সহ্য করা হবে না: শামসুল


সিলেটের সকাল ডেস্ক:: সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও জেলা বারের অ্যাডিশনাল পিপি অ্যাডভোকেট শামসুল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশ স্বাধীনের পর বঙ্গবন্ধু দেশে ফেরার দিন সারা বাংলাদেশ মানুষ তাকে বরণ করে নিয়েছিল। তিনি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধে প্রেরণার উৎস। শেখ মুজিব দেশকে স্বাধীন করেছিলেন, আর তাঁর সুযোগ্য কণ্যা দেশকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন। দেশকে এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনা এবার অনেক তরুণ রাজনীতিককে মন্ত্রী পরিষদে স্থান দিয়েছেন। এর মধ্যে সিলেটের পরিচ্ছ্বন্ন ৫ কৃতি সন্তান রয়েছেন। তিনি বলেন, হাওর উন্নয়নে আলাদা মন্ত্রনালয় গঠন এখন সময়ের দাবী। হাওর এলাকার উন্নয়নে পিআইসি গঠন ও ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণে কোনো দুর্নীতি সহ্য করা হবে না। দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দাঁড়াতে হবে। কৃষক যাতে তার কষ্টার্জিত ফসল ঘরে তুলতে পারে সেজন্য হাওর রক্ষা বাঁধ সঠিক সময়ের মধ্যে নির্মাণ করা জরুরী। এজন্য সরকার ও প্রশাসনকে আরো দ্রুত ও বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করতে হবে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও মন্ত্রী পরিষদে সিলেট বিভাগের পাঁচজন মন্ত্রী স্থান পাওয়ায় অভিনন্দন জানিয়ে হাওর উন্নয়ন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর জিন্দাবাজারস্থ একটি হোটেলের সম্মেলনকক্ষে এ অনষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

হাওর উন্নয়ন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মনোরঞ্জন তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক খালেদ মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত নাগরিক পরিষদ’র (সনাপ) সভাপতি মো. বেলাল উদ্দিন, হাওর উন্নয়ন পরিষদের সহ-সভাপতি এনামুল হক লিলু, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, অধ্যাপক মাহবুবুর রঊফ নয়ন, প্রভাষক ফজলে রাব্বি চৌধুরী, বাদল পুরকায়স্থ, হুমায়ুন রশিদ শাহীন, মামুন চৌধুরী, বদরুল আলম, তায়েফ আহমদ চৌধুরী, মো. আবু সাঈদ তালুকদার প্রমুখ।

শেয়ার করুন