মানুষ গভীরভাবে পরিবর্তন প্রত্যাশা করছে, তবে ভোট নিয়ে শঙ্কায় মুক্তাদির

সিলেটের সকাল রিপোর্ট :: মানুষ গভীরভাবে পরিবর্তন প্রত্যাশা করছে বলেই তারা বাধা উপেক্ষা করে ভোট কেন্দ্রে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন সিলেট-১ (সিটি কর্পোরেশন ও সদর উপজেলা) আসনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী খন্দকার আবদুল মুক্তাদির। ভোট নিয়ে শঙ্কায় থাকলেও তিনি শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবেন বলেও জানান।

রোববার সকাল ১০টার দিকে নগরীর সারদা হল কেন্দ্রে ভোট দান শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘তুচ্ছ অজুহাতে ভোটের গতি কমানো হচ্ছে, মানুষকে নিরুসাহিত করা হচ্ছে। এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ভোট শুরু হওয়ার পর পাঠানটুলা, আম্বরখানাসহ কয়েকটি এলাকায় তার এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয়েছে। মেজরটিলা জামেযা থেকে এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে; চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া অনেক সেন্টারে পোলিং এজেন্টদের ডুকতে দেওয়া হয়নি। প্রিজাইডিং অফিসাররা বিভিন্ন অজুহাতে তাদের ডুকতে দিচ্ছেন না।

রির্টানিং কর্মকর্তা বরাবরে তিনি অভিযোগ করবেন কি না?-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি আপনাদের (সাংবাদিকদের) মাধ্যমে অভিযোগ যানালাম। ওখানে অভিযোগ করে কি হবে? আমরা বারবার প্রশাসনকে বলছি। নির্বাচনী প্রচারণা চলাকালে রিটানিং কর্মকতা এমনকি নির্বাচন কমিশন বরাবরে ডজনের মতো অভিযোগ করেছি, একটিরও প্রতিকার পেলে মনে খাতা-কলম খরচের শান্তনা পেতাম কিন্তু হয়নি।’

সিলেট-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

শেয়ার করুন