দুই সন্তান ও স্ত্রীকে হত্যার পর বাবার আত্মহত্যা

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: চাঁদপুরে স্ত্রী ও দুই শিশু সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন মাইনুদ্দিন সর্দার (৩৫) নামে এক ব্যক্তি। সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) ভোর ৫টার দিকে সদর উপজেলার দেবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, নিজের স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন মাইনুদ্দিন।

স্থানীয়রা আরো জানায়, ভোরে বাড়ির পুকুরে নারীর লাশ ভাসতে দেখি, এ সময় বিছানায় পড়ে ছিলো দুই শিশুর লাশ আর বাড়ির আড়ায় ঝুলছে আছে স্বামীর লাশ।

নিহত চারজন হলেন মাইনুদ্দিন সরদার (৩০), তাঁর স্ত্রী ফাতেমা বেগম (২৪) এবং ওই দম্পতির দুই শিশু মিথিলা (৫) ও সিয়াম (২)।

জানা যায়, মাইনুদ্দিন সরদারের সঙ্গে সাত বছর আগে ফাতেমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে তাঁদের মধ্যে কলহ শুরু হয়। এরই জের ধরে এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি ফাতেমার পরিবারের।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আল মামুন জানান, নিহত মাইনুদ্দিনের সরদারের ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে জানা যায় গত দুই দিন আগে মাইনুদ্দিন স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি নিয়ে আসেন। সোমবার ভোর রাত ৫টায় প্রথমে স্ত্রী ফাতেমা বেগকে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেন। পরে মেয়ে মিথিলা ও ছেলে সিয়ামকে হত্যা করে ঘরের বিছানায় ফেলে রাখে। পরে মাইনুদ্দিন সরদার নিজে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। এই চাঞ্চল্যকর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম উদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের কারণে এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

শেয়ার করুন