চট্টগ্রামে জাপা প্রার্থীর কর্মী সমাবেশে হামলা, গুলিদ্ধিসহ আহত ১৫

সিলেটের সকাল ডেস্ক:: চট্টগ্রাম-১৬ বাঁশখালী আসনে জাতীয় পার্টি (জাপা) মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীর কর্মী সমাবেশে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ১৫ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। -খবর মানবজমিন

শুক্রবার বিকেলে উপজেলার চাম্বল মাদরাসা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের অভিযোগ, আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমানের সমর্থক স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মুজিবুল হকের অনুসারী নেতাকর্মীরা এ হামলা চালিয়েছে।

হামলায় কপিল উদ্দীন (৪২), নুনু মিয়া (২৯), হাসান (৪২), রশিদ (৩১), আজিজ আহমদ( ৬১), মো. আমিন (৫১) শরিফ ৫৫), রাসেল (২২), মাহমুদ (৪১) আনোয়ার (৩৯) রেজাউল করিম (৪৭) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে।

এ সময় ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত থাকলেও কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত রয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। গুলিবর্ষণকারীদের গ্রেপ্তারে পুলিশ চেস্টা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

স্থানীয় লোকজন জানান, শুক্রবার বিকেলে বাঁশখালী চাম্বল ইউনয়িন মাদ্রাসা সংলগ্ন বাজারে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী কর্মী সমাবেশের আয়োজন করে। এ নিয়ে সকাল থেকে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমানের অনুসারী ও জাতীয় পার্টির সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীর পক্ষে একটি মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে যাওয়ার পথে চাম্বল মাদরাসা সামনে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। এ সময় চাম্বল মাদ্রাসার সামনে আটকে পড়া মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীর গাড়ির বহরেও গুলি চালায়। এতে জাতীয় পার্টির ১৫-১৬ জন নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়। ঘটনার সময় পুলিশ উপস্থিত থাকলেও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে জানান স্থানীয়রা।

উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১৬ বাঁশখালী আসনে দুই জোটের চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থীদের সামনে চ্যালেঞ্জ হিসেবে রয়েছেন শরিক দলের হেভিওয়েট দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী। এরমধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। আর মনোনয়ন না পেয়ে দলের নির্দেশে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক সিটি মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী।

শেয়ার করুন