সিলেট বৌদ্ধ বিহারে চীবর দান অনুষ্ঠিত

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: সিলেট বৌদ্ধ বিহারে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দান। শুক্রবার নগরীর আখালিয়া নয়াবাজারস্থ সিলেট বৌদ্ধ সমিতির আয়োজনে ‘সিলেট বৌদ্ধ বিহারে’ এ চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভার উপদেষ্টা শ্রীমৎ দেবানন্দ মহাথের এর সভাপতিত্বে ও সিলেট বৌদ্ধ সমিতির সাধারণ সম্পাদক বাবু উৎপল বড়–য়ার পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট সিটি র্কপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিটি কাউন্সিলর মোঃ ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াস, প্রকৌশলী মোঃ নুর আজিজ, সিটি কাউন্সিলর রেবেকা বেগম রেনু, শ্যামা হক চৌধুরী, স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমিতির উপদেষ্টা বাবু তপন কান্তি বড়–য়া।

বাবু অমৃত চাকমার পঞ্চশীল প্রার্থনার মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া বুদ্ধ পূজা উৎসর্গ, সংঘাদান, অষ্টপরীক্ষার দান, ধর্মদেশনা করেন দেববংষু থের, সিলেট বৌদ্ধ বিহার অধ্যাক্ষ সংঘ্যানন্দ থের, সুজানন্দ থের।

অনুষ্ঠানে ২য় পর্বে চন্দ্র শেখর বড়–য়া ও চন্দ্রিকা বড়–য়ার যৌথ সঞ্চালনায় আহবায়কের বক্তব্য রাখেন বাবু লিটন বড়–য়া, স্বাগত বক্তব্য রাখেন, স্বাধন কুমার চাকমা, অধ্যাপক বাবু বরুন চৌধুরী, দানোত্তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠানে প্রধান ধর্মদেশনা করেন শ্রীমৎ তনহংকার থের।

অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, বাবু দিবাকর বড়–য়া, দীলিপ বড়–য়া, রবিন্দু চাকমা। এছাড়াও সিলেটে কর্মরত সরকারী-বেসরকারী পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও আলোচকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

চীবর দান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘সামাজিক উন্নায়নে সকল ধর্মের মানুষের একে অপরের প্রতি ভ্রাতিত্ববোধ এবং আন্তরিক হতে হবে। কারণ সব ধর্মই হানাহানি পরিত্যাগ করে শান্তির কথা বলে। তাই একে অপরের ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশিল থাকতে হবে। জানতে হবে, বুজতে হবে। তাহলেই সমাজে পরিপূর্ণ শান্তি প্রতিষ্ঠা হবে।’

পবিত্র আষাঢ়ী পূর্ণিমা হতে আশ্বিনী পূর্ণিমা র্পযন্ত তিন মাস পবিত্র বর্ষাব্রত পালন শেষে কঠিন চীবর দানোৎসবকে কেন্দ্র করে প্রতিটি বৌদ্ধ জনপদে বৌদ্ধ জনসাধারন তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধরে অমিয় ধর্মসূধা “বহু জন হিতয়া, বহু জন সুখায়” এই অমৃত বাণী শোনার জন্য উদগ্রীব হয়ে থাকে। সাথে সাথে কঠিন চীবর দানকে আতœীয়-স্বজনদের মহা মিলনের ক্ষেত্র তৈরি করে।

শেয়ার করুন