বালাগঞ্জের উন্নয়নে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে: জেলা প্রশাসক

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি :: সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেছেন, ‘বালাগঞ্জের শিক্ষা, যোগাযোগ এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, শিক্ষক, সাংবাদিকসহ সকল মহলকে একযোগে কাজ করতে হবে।’

তিনি সিলেটের উন্নয়ন প্রসঙ্গে বলেন, প্রকৃতি কন্যা সিলেটকে মনের মতো সাজাবো পাশাপাশি বালাগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন সমস্যাগুলোকে পর্যায়ক্রমে সমাধান করা হবে।

বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক প্রতিনিধি, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকদের সাথে উপজেলার উন্নয়ন কার্যক্রমের অগ্রগতি, বাস্তবায়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবদুল হক।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমন চন্দ্র দাশের পরিচালনায় সভায় বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. আবদাল মিয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মোস্তাকুর রহমান মফুর, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা সৈয়দ আলী আছগর, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রেফা বেগম, বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ গাজী আতাউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বোয়ালজুড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনহার মিয়া, পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মতিন, দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল আলম, বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মুনিম, পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মধু, পূর্ব গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের হিমাংশু রঞ্জন দাস, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. মো. আবুল কালাম আজাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল কামাল, আব্দুল গফুর খালিছদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এমএ মতিন, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রফিকুল আলম, শিক্ষক প্রতাপ চক্রবর্তী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আমির আলী, বালাগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রজত চন্দ্র দাস ভুলন, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহাব উদ্দিন শাহিন, গহরপুর রাইটার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম হেলাল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বালাগঞ্জ উপজেলাকে হাওর অঞ্চল ঘোষণা, নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ, সিলেট-সুলতানপুর-বালাগঞ্জ সড়ক এবং পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের একমাত্র সড়ক কুশিয়ারা ডাইক সড়ক উন্নয়ন, বালাগঞ্জ ডিএন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ সংস্কার, বালাগঞ্জ সরকারি হাসপাতালের উন্নয়নসহ বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করেন।

এদিকে জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম উপজেলার বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় পরিদর্শন, বোয়ালজুড় ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন এবং বোয়ালজুড় বাজার উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।

শেয়ার করুন