বর্ণিল আয়োজনে জিএসসির রজত-জয়ন্তী উদযাপন

লন্ডন প্রতিনিধি :: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে যুক্তরাজ্যের সর্ববৃহৎ সংগঠন গ্রেটার সিলেট ডেভোলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল ইউকের আয়োজনে গত ২৫ নভেম্বর উদযাপিত হল রজত জয়ন্তী উৎসব। পূর্ব লন্ডনের রয়েল রিজেন্সি হলে দিনব্যাপী আয়োজিত বর্ণাঢ্য এই অনুষ্ঠানে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে রিজিওয়ান নেতৃবৃন্দ, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দসহ সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দ অংশ নেন । এতে অনুষ্ঠানটি বৃহত্তর সিলেটবাসীর এক মিলন মেলায় পরিনত হয়।

সিলেট বিভাগের ৪টি জেলা, সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার যুক্তরাজ্য প্রবাসীদের নিয়ে ২৫ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত হয় গ্রেটার সিলেট ডেভোলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল (জিএসসি)। অনুষ্ঠানে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাকালিন সময় যারা অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে থেকে ২১জনকে এওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

ভ্রাতৃত্ববোধ, ইউনিটি ও কমিউনিটির উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে গঠিত জিএসসি প্রতিষ্ঠার পর থেকে কমিউনিটির কল্যানে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও এধারা অব্যাহত থাকবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন উপস্থিত নেতৃবৃন্দ। সম্মেলনে নতুন প্রজন্মকে সংগঠনের সদস্য করার উপর গুরুত্ব দেয়া হয় এবং সিলেটে একটি ভবন নির্মান করা হবে বলে জানানো হয়।এবছরের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর ব্যাপক সফলতায় উৎসাহিত হয়ে সংগঠনটি আগামীতে প্রতি বছর এদিনটি বৃহত্তর সিলেট উৎসবে পরিনত করার পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে বলে জানানো হয় ।

২৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চেয়ারপার্সন ব্যারিস্টার আতাউর রহমান এবং অনুষ্ঠান বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও সংগঠনের সহ সভাপতি মির্জা আসহাব বেগ। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও ব্রিটেনের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। সংগঠনের জেনারেল সেক্রেটারী খসরু খানের পরিচালনায় সভায় ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিশাল ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করেন সংগঠনের প্রেটন আলহাজ্ব নাসির আহমদ, কে এম আবু তাহের চৌধুরী, ড. হাসনাথ হোসেন এমবিই সহ সাবেক ও বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইলফোর্ড সাউথের মাইক গিভস এমপি, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার কাউন্সিলার মোহাম্মদ আয়াছ মিয়া, সুইন্ডনের মেয়র কাউন্সিলার জুনাব আলী, নিউহাম বারার ডেপুটি চেয়ারম্যান কাউন্সিলার ব্যারিস্টার নাজির আহমদ, চ্যানেল এস এর চেয়ারম্যান আহমদ উস-সামাদ চৌধুরী জেপি, চ্যানেল এস এর ফাউন্ডার মাহী ফেরদৌস জলিল,এনটিভির ইউরোপের সিইও সাবরিনা হোসাইন , ক্যানারি ওয়ার্ফ গ্রুপের জাকির খান, বিশিষ্ট একাউন্টেন্ট কমিউনিটি নেতা ড. নূরুল আলম, সাবেক চেয়ারপার্সন আলহাজ্ব আলা উদ্দিন আহমদ, নূরুল ইসলাম মাহবুব, জিএসসির ফাউন্ডার জেনারেল সেক্রেটারী কয়ছর মাহমুদুল হক সৈয়দ, ফাউন্ডার ট্রেজারার মাহীদুর রহমান, ফাউন্ডার কো-অডিনেটর ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিই, সালেহ আহমদ খান এমবিই, মাহতাব মিয়া, বর্তমান ট্রেজারার সালেহ আহমদ, সাবেক জেনারেল সেক্রেটারী আব্দুল কাইয়ুম কয়ছর, সাবেক সহ সভাপতি এম এ মান্নান, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের এফওবিসির চেয়ারম্যান ইয়াওর খান,ব্রিটিশ বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এসোশিয়েশনের সভাপতি কাউন্সিলর এস আই সেলিম, সাধারন সম্পাদক সেলিম চৌধুরী, নবীগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্টের সভাপতি মুজাহিদ মিয়া (মোতাহের হোসেন ),জিএসসি মোলভী বাজার ব্রাঞ্চের সভাপতি ডাঃ সাদিক খান , ব্যরিস্টার আবুল কালাম, ব্যরিস্টার শামস উদ্দিন, ব্যরিস্টার তারেক চৌধুরী, কাউন্সিলর সদরুজ্জামান খান, কাউন্সিলর আহবাব হোসাইন, কান্সিলর শামসুল ইসলাম, কাউন্সিলর খালেদ নূর,কাউন্সিলর জোতস্না ইসলাম, কাউন্সিলর ফয়জুর রহমান , বাংলাদেশ সেন্টারের সিনিয়র সহ সভাপতি মুহিবুর রহমান, সহ সভাপতি আশরাফ উদ্দিন,সেক্রেটারী দেলোয়ার হোসেন, জিএসসি কেন্দ্রিয় কমিটি থেকে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার সালেহ আহমেদ, সহ সভাপতি মোঃ ফিরুজ খান, মোহাম্মদ ইছবাহ উদ্দিন , এ এফ কামরুল হাসান চুন্নু, মোঃ আব্দুল আজিজ, মোঃ শহিদ চৌধুরী, আরজু মিয়া এমবিই, এইচ এম আশরাফ আহমেদ, ব্যরিস্টার মাসুদ চৌধুরী, জয়েন্ট সেক্রেটারীদের মধ্যে আলহাজ তৌফিক আলি মিনার, ফজলুল করীম চৌধুরী, ব্যারিস্টার এম এ মজিদ তাহের, মোঃ আহসানুজ্জামান আরিফ, জয়েন্ট ট্রেজারার মধ্যে মোঃ আবুল কালাম,সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আসকির বেগ , সহ সাংগঠনিক সম্পাদক কাইয়ুম খান ফয়ছল, কেন্দ্রীয় প্রেস এন্ড পাব্লিসিটি সেক্রেটারী সুফী সুহেল আহমদ , মেম্বারশীফ সেক্রেটারী এম এ গফুর, সহ মেম্বারশীফ সেক্রেটারী সিতার আহমদ, এডুকেশন সেক্রেটারী মঞ্জু রেজা চৌধুরী, ইন্টারন্যাশনাল এফেয়ার সেক্রেটারী মোঃ জসিম উদ্দিন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আব্দুল গনি,স্পোটস সেক্রেটারী আব্দুল মালিক কুটি, এম্পয়মেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার সেক্রেটারী কয়ছর মিয়া, কালচারল সেক্রেটারী হেলেন ইসলাম, ইয়ুথ সেক্রেটারী মুহিব উদ্দিন চৌধুরী, জাহাংগির খান,সায়েদা হোসেন, ডক্ট্রর জাকি রেজওয়ানা আনোয়ার ,ডক্টর রওয়াব উদ্দিন, কাজি মাসুদ, গোলাম আনিস চৌধুরী ,আব্দুর রাজ্জাক, কাউন্সিলর নেছার আলী, মোহাম্মদ চুনু মিয়া, তমিমুল ইসলাম চৌধুরী, শাহ সাফিক কাদির, আব্দুল মালিক, মোঃ নজরুল ইসলাম, এডভোকেট গোলাম মোস্তফা মীর, মোঃ সুহেল মিয়া, এম এ মান্নান ময়না, হাবিবুর রহমান রানা, সৈয়দ সহুরুল বারী, মোহাম্মদ ফয়জুর রহমান চৌধুরী,আব্দুস সালাম, আশরাফ মিয়া, মোঃ আবুল মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাব্বির আহমদ, হেলাল আহমদ তফাদার, শেখ শাহজাহান আহমদ তরফদার,সৈয়দ আবু সাঈদ আহমদ, সৈয়দ আখলাকুল আম্বিয়া রাবেল,এম এ শহীদ, দেলওয়ার হোসেন দিলু , মাওলানা রফিক আহমদ রফিক, লুকমান আলী, মামুনুর রশীদ, সৈয়দ জিল্লুল হক, কামরুল হাসান চৌধুরী, এনায়েত খান , দেলোয়ার হোসেইন, আব্দুল হাদী ,আব্দুল হাকিম হাদী,আজম আলী প্রমুখ।

যাদেরকে এওয়ার্ড প্রদান করা হয় তারা হচ্ছেন প্রায়ত তাসাদ্দুক আহমদ এমবিই, প্রয়াত ওয়াহিদ আহমদ কুতুব, প্রয়াত মুফাচ্ছিল আলী, প্রয়াত মৌলানা ইজ্জ্বত আলী, আলহাজ্ব এম আলাউদ্দিন আহমদ, ড. সুহেল ইবনে আজিজ, সালেহ আহমদ খান এমবিই, ওয়ালি তসর উদ্দিন এমবিই, ড. কবির চৌধুরী, সাজিদা চৌধুরী, কয়ছর মাহমুদুল হক সৈয়দ, মুস্তাসিম আলী (সিতু মিয়া), মাহিদুর রহমান, আলী ইসমাইল, হাসান চৌধুরী, গোলাম মোস্তফা চৌধুরী, সৈয়দ জুরান আলী, মিয়া মনিরুল আলম, বদরুল লুদী।

জিএসসি কমিউনির বিভিন্ন দাবী দাওয়া নিয়ে ব্রিটেনে ও বাংলাদেশে কাজ করে যাচ্ছে। আগামীতেও আরো ব্যাপক পরিসরে কাজ করবে এটাই সকলের প্রত্যাশা। অনুষ্ঠানের সমাপনি বক্তব্যে চেয়ারপার্সন ব্যারিস্টার আতাউর রহমান সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে আগামী দিন গুলোতে সংগঠনকে আরও গতিশীল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন । আমন্ত্রিত অতিথিরা জিএসসির বিগত দিনের বিভিন্ন উন্নয়ন ও সেবামূলক কর্মততপরতার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে মুনোজ্ঞ সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

শেয়ার করুন