সুনামগঞ্জ-৫ আসনে মানিককে বিজয়ী করার অঙ্গীকার

দোয়ারার সমাবেশে উপস্থিত জনতার একাংশ-ছবি সিলেটের সকাল

দোয়রাবাজার প্রতিনিধি ॥ ছাতক-দোয়ারায় উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মুহিবুর রহমান মানিককে নৌকা প্রতিকে বিজয়ী করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করলেন মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত দোয়ারাবাজারের লাখো মানুষ। শনিবার উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত গণ সমাবেশে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের সাথে হাত তুলে তারা এ অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন-আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের সময় বাংলাদেশের অভূতপুর্ব উন্নয়ন হয়েছে। আমাদের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি দেখে বিশ্ব নেতারা অবাক হয়েছেন। এই উন্নয়নকে ধরে রাখতে হবে। আওয়ামীলীগকে আবারও ক্ষমতায় পাঠাতে হবে। তিনি বলেন- শুধু ছাতক-দোয়ারা নয়, এ সরকারের সময়ে সারা দেশে উন্নয়ন হয়েছে। তাই দেশের মানুষ আবারও আওয়াীলীগকে ক্ষমতায় পাঠাতে প্রস্তুত। তবে ষড়যন্ত্রকারিদের প্রতি চোখ-কান খোলা রাখতে হবে। যাতে আমাদের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধিকে কেউ বাধাগ্রস্ত করতে না পারে। মন্ত্রী ছাতক-দোয়ারায় আবারও মুহিবুর রহমান মানিককে বিজয়ী করে সংসদে পাঠিয়ে এ অঞ্চলে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে জনগণের প্রতি আহবান জানান। মন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের পরে দোয়রাবাজারে সুরমা নদীতে মুক্তিযোদ্ধা সেতু ও ছাতক সুনামগঞ্জ পর্যন্ত রেল লাইন নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

সমাবেশে জনতার উদ্দেশ্যে হাত নাড়ছেন এম এ মান্নানসহ অতিথিবৃন্দ

দোয়ারাবাজার সরকারি মডেল উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন দোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী বীরপ্রতিক। সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি, ড. জয়া সেন গুপ্তা এমপি, সংরক্ষিত আসনের এমপি এডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র নাদের বখত, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট রাজ উদ্দিন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইউসুফ আল আজাদ, দোয়ারাবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ডাক্তার আব্দুর রহিম, সুনামগঞ্জ জেলা কৃষকলীগের আহবায়ক করুণা সিন্ধু রায় বাবুল, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য এডভোকেট আব্দুল আজাদ রোমান ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি বলেন- আজকের এই জন¯্রােত প্রমাণ করে ছাতক-দোয়ারায় মানিক কত জনপ্রিয়। এই আসনের মানুষ আজ প্রমাণ করেছেন আওয়ামীলীগ ও মানিকের বিকল্প এখানে এখনও তৈরী হয়নি।
ড. জয়া সেন গুপ্তা এমপি বলেন- দোয়ারার মানুষ একাত্তরে যেভাবে দেশের জন্য অস্ত্রহাতে নিয়েছিলেন, তারা আওয়ামীলীগ ও দেশের সমৃদ্ধির জন্য এখনও সেই চেতনা লালন করেন। সেটা আজকের এই সমাবেশে প্রমাণ করেছেন।
ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় ¯্রােতের উজানে নৌকা চালিয়ে বাংলাদেশেকে আজ এই অবস্থানে নিয়ে এসেছেন। মুহিবুর রহমান মানিকও সকল ষয়যন্ত্রকে পেছনে ফেলে ছাতক-দোয়ারাকে উন্নয়নের শিখরে পৌঁছাচ্ছেন। আমাদের এই উন্নয়নকে আরো এগিয়ে নিতে হবে।
আওয়ামীলীগ নেতা আফজাল হোসেন ও যুবলীগ নেতা আবুল মিয়ার যৌথ পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন দোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল খালিক, আমিরুল হক চেয়ারম্যান, ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান, ছাতক পৌর সভার সাবেক মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সৈয়দ আহমদ, ছাতক উপজেলা ভাইস চেয়ায়রম্যান আবু সাদাত লাহিন, দোয়ারা উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা কাজী আনোয়ার মিয়া আনু, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক জসিম মাস্টার, সাবেক আহবায়ক কয়ছর আহদ চৌধুরী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার সফর আলী, ছাতকের সাবেক কমান্ডার নুরুল আমীন ও আনোয়ার রহমান তোতা মিয়া প্রমুখ। গণ সমাবেশে সকাল থেকে ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে সড়ক ও নৌপথে মানুষ আসতে থাকেন। এক সময় সমাবেশস্থল জনসমুদ্রে পরিণত হয়। এর আগে মন্ত্রীকে নিয়ে এমপি মানিক ছাতকের নির্মানাধীন সেতুর কাজ পরিদর্শন করেন। মন্ত্রীসহ অতিথিরা দোয়ারাবাজারে শত কোটি টাকার বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন।

শেয়ার করুন