সিলেটে পূবালী ব্যাংকে কর্মশালা সম্পন্ন

সিলেটের সকাল ডেস্ক :: মন্দঋণ ব্যাংকিং খাতের এক দুষ্ট ক্ষত। ঋণ প্রশাসনে দক্ষতা ও মন্দ ঋণের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে ‘এনপিএল’র লাগাম টেনে ধরে এ ক্ষতের অনেকটা প্রতিকার করা সম্ভব। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নেও যা ইতিবাচক ভূমিকা পালন করবে।

শনিবার সিলেটে পূবালী ব্যাংক লিমিটেড আয়োজিত ‘ঋণ প্রশাসন, মন্দ ঋণ ব্যবস্থাপনা ও অনলাইন সিআইবি রির্পোটিং’ বিষয়ক দিনব্যাপী এক কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

শহরতলীর পীরেরবাজারস্থ ব্রাক লানিং সেন্টারের সম্মেলন কক্ষে পূবালী ব্যাংকের সিলেট প্রিন্সিপাল অফিস আয়োজিত এই কর্মশালায় প্রধান রির্সোস পার্সনের বক্তব্য রাখেন, ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের ঋণ প্রশাসন, ব্যবস্থাপনা ও তদারকী বিভাগের প্রধান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক শ্যাম সুন্দর বনিক। কর্মশালার প্রেসিডিয়াম প্যানেলে ছিলেন, সিলেট প্রিন্সিপ্র্র্রাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো: মশিউর রহমান খান, সিলেট পশ্চিমাঞ্চল প্রধান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক মো: জিয়াউল হক চৌধুরী ও সিলেট পূর্বাঞ্চল প্রধান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক মাহবুব আহমদ।

ব্যাংকের সিলেট প্রিন্সিপাল অফিসের এসপিও মো: হুমায়ুন মিয়ার সঞ্চালনায় কর্মশালায় রির্সোস পার্সন হিসেবে আরও বক্তব্য রাখেন, প্রধান কার্যালয়ের ঋণ প্রশাসন, ব্যবস্থাপনা ও তদারকী বিভাগের জ্যাষ্ঠ কর্মকর্তা মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন মৃধা, রেজাউল আহসান মো: আরিফ ও আইন বিভাগের জ্যাষ্ঠ কর্মকর্তা আশরাফুল আরাফাত।

কর্মশালার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন দরগাহগেটস্থ ইসলামিক উইন্ডো ইনচার্জ নওয়াজেশ শামস ও পবিত্র গীতা থেকে পাঠ করেন ব্যাংকের ফেঞ্চুগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক বিনায়ক চক্রবর্তী।

কর্মশালায় পূবালী ব্যাংকের সিলেট পূর্ব ও পশ্চিম অঞ্চলের বিভিন্ন শাখার ব্যবস্থাপক ও ঋণ কর্মকর্তা, ইসলামী উইন্ডো ইনচার্জ, সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক কার্যালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ অংশ নেন।

শেয়ার করুন