বিশ্বনাথে বয়স কম হওয়ায় ভেঙ্গে গেল কাওছারের বিয়ে

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি:: বয়স ২১ না হওয়ায় বিয়ে করা হলো না কাওছার আহমদের (১৯)। সে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার নতুন পারকুল গ্রামের ছমরু মিয়ার পুত্র।

শুক্রবার কাওছারের সাথে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল বিশ্বনাথ উপজেলার উজাইজুরী গ্রামের মৃত আব্দুল মুতলিবের মেয়ে আমিনা বেগমের (১৯)।

রামপাশা ইউনিয়নের নকিখালীস্থ শাহ উসমান কমিউনিটি সেন্টারে শুক্রবার বেলা ২টায় বর যাত্রীর বহর নিয়ে সেন্টারে উপস্থিত হন বর। বিয়ে পড়াতে উপস্থিত হন কাজীও। তবে বরের বয়স আইন অনুযায়ী ২১ না হওয়ায় বেকে বসেন কাজী। তিনি বিয়ে পড়াতে অপারগতা জানান।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে রামপাশা ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, বিশ্বনাথ থানার এস.আই. স্বাধীন চন্দ্র তালুকদার, এ.এস.আই. জামাল খান, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইছাক আহমদ ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মিনা বেগম উপস্থিত হন কমিউনিটি সেন্টারে।

এসময় তারা বর ও কনের জন্মনিবন্ধনের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পর্যালোচনা করে বিয়ে ভঙ্গের নির্দেশ প্রদান করেন। এতে বর ও করেন অভিভাবকরা সম্মতি জানান এবং বরের বয়স ২১ বৎসর না হওয়া পর্যন্ত এই বিয়ে না দেওয়ার লিখিত অঙ্গিকারনামা প্রদান করেন। একপর্যায়ে খাওয়া-দাওয়া না করে কনে ছাড়াই বরযাত্রীসহ বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন বর।

শেয়ার করুন